fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

‘সব ভেঙে গিয়েছে, কিছুই বোঝা যাচ্ছে না’ আমফান মোকাবিলায় রাজ্য-কেন্দ্র একযোগে কাজ করবে, মুখ্যমন্ত্রী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আমফান বিধ্বস্ত বাংলার।  এদিন প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী দুইজনে একই কপ্টারে চেপে পরিদর্শন করেছেন দুই ২৪ পরগনার আমফান বিধ্বস্ত এলাকাগুলি। বসিরহাটে দুইজনে করেছেন প্রশাসনিক বৈঠকও। সেখান থেকেই প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন আম্ফান পরবর্তী বাংলার পুনর্গঠনের জন্য কেন্দ্র আপাতত ১০০০ কোটি টাকা দেবে রাজ্য সরকারকে। বৈঠক শেষে মুখ্যমন্ত্রীকে সঙ্গে নিয়েই কলকাতা বিমানবন্দরে ফেরেন প্রধানমন্ত্রী।

দমদম বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মুখোমুখি হন সাংবাদিকদের। সেখানেই তিনি জানান, ‘সব ভেঙে গিয়েছে, কিছুই বোঝা যাচ্ছে না। কোনটা গ্রাম আর কোনটা মাঠ। মনে হচ্ছে একটাই এলাকা। বসিরহাটে বৈঠক হয়েছে। কোনও দাবি করিনি, কিন্তু বাঁধ নির্মাণ করতে হবে। বিদ্যুৎতের অবস্থা খুব খারাপ। সব শস্যক্ষেত্রও নষ্ট হয়েছে। ১০০০ কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু ডিটেলস দেননি উনি। সেটা পরে করা হবে। ৫৩ হাজার কোটি বাকি রয়েছে, সেটাও বলেছি। সেটা থেকে টাকা দেওয়ার অনুরোধ করেছি। একঘণ্টা বৈঠক করেছি। জল-জলাকার হয়ে গিয়েছি। এই সময়ে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

আরও পড়ুন: আমফান মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর তহবিলে ৫০ লক্ষ টাকা অনুদান ধনকরের

রাজ্য-কেন্দ্র একযোগে কাজ করবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন বেশ কিছু ক্ষেত্র রয়েছে যেখানে কেন্দ্র রাজ্য উভয় মিলে কাজ করে। সেখানে সাহায্য করা যেতে পারে। কেন্দ্র টিম পাঠাচ্ছে তারা খতিয়ে দেখবে। আমিও কাল দক্ষিণ ২৪ পরগনা যাব মিটিং করব। ঈদের পরে অন্য জায়গায় যাব। দ্রুত রেসটোরেশনের কাজ শুরু করে দিতে হবে। সব মিলিয়ে আলোচনায় যে তিনি অখুশি নন, সেটা বুঝিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Related Articles

Back to top button
Close