fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

‘মমতা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছে’: বিজেপির বিশেষ পর্যবেক্ষক বিনোদ সনকর

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: ‘পশ্চিমবাংলায় রাষ্ট্রবিরোধী, উন্নয়ন বিরোধী, তোষণকারি সরকার চলছে। গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। এরকম সরকার চলছে। মমতা ব্যানার্জি মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছে। তাই বাংলার জনতা মনস্থির করে নিয়েছে, এই সরকারকে উপড়ে ফেলার।বুধবার দুর্গাপুরে পা রেখে এভাবেই তোপ দাগলেন বিজেপির রাঢ়বঙ্গ জোনের বিশেষ পর্যবেক্ষক বিনোদ সনকার। এদিন বিনোদ সনকার বলেন, ‘বাংলার জনতা উন্নয়ন চায়, শান্তি চায়, রোজগার চায়। তাই কেন্দ্রে যেমন বিজেপি, রাজ্যেও বিজেপিকে ক্ষমতায় আনতে চায় বাংলার জনতা। এবং এক ডবল ইঞ্জিনের সরকার গঠন হবে।”

প্রসঙ্গত, বিহার জয়ের পর পশ্চিমবঙ্গকে পাখির চোখ করেছে বিজেপি। আর তাই বাংলা জয়ের লক্ষ্যে বেশ কয়েকটি জোনে ভাগ করে নতুন করে রনকৌশল তৈরি শুরু করেছে বিজেপির প্রদেশ নেতৃত্ব। বুধবার রাজ্যের সব কটি জোনে এক যোগে বিশেষ বৈঠক করেন সেখানের পর্যবেক্ষকরা। রাঢ়বঙ্গ জোনের বিজেপির সাংগঠনিক জেলা আসানসোল, বর্ধমান সদর, কাটোয়া, বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুর, বীরভূম, পুরুলিয়া জেলার বিশেষ বৈঠক ছিল দুর্গাপুরে। বৈঠক অংশ নেনে পর্যবেক্ষক বিনোধ সনকার।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাজ্যে বিজেপির পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন, বিজেপির রাজ্য সহ সভাপতি রাজু ব্যানার্জি, সাংসদ সুভাষ সরকার প্রমুখ। বৈঠক চলবে দুদিন।
এদিন বৈঠক শেষে বিনোদ সনকর রাজ্যে তৃণমূল সরকারকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করে বলেন,” গত ১০ বছরে বাংলা উন্নয়নে পিছিয়ে পড়েছে। বাইরের শিল্পপতিরা আসছে না। শিল্পপতিরা বিনিয়োগ করছে না। তৃণমূল সরকারের গুন্ডাবাজিতে পালিয়ে যাচ্ছে শিল্পপতিরা। পুলিশ প্রশাসন তৃণমূলের নেতা হয়ে কাজ করছে।”
তিনি আরও বলেন, “বাংলায় রাষ্ট্রবিরোধী সরকার চলছে। উন্নয়ন বিরোধী, তোষণকারী সরকার চলছে। এই সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। রাজ্যে বিজেপি কর্মীদের চিহ্নিত করে খুন করা হচ্ছে। তাই বাংলার মনুষ মনস্থির করে নিয়েছে, এই সরকারকে উপড়ে ফেলার। বাংলার জনতা এই সরকার থেকে মুক্তি চাইছে। তাই বাংলায় পরিবর্তন ঢেউ চলছে।” তিনি বলেন,” বাংলার মানুষ উন্নয়ন চায়, শান্তি চায়, রোজগার চায়। তাই কেন্দ্রে যেমন বিজেপি, রাজ্যেও বিজেপিকে ক্ষমতায় আনতে চায় বাংলার জনতা। এবং এক ডবল ইঞ্জিনের সরকার গঠন হবে। এমন সরকার গঠন হবে। যেখানে আইনের প্রতিষ্ঠা পাবে। শিল্পপতিরা বিনিয়োগ করবে। উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।”

বিজেপির রাজ্যে মুখ না থাকায় তৃণমূলের কটাক্ষ করা প্রসঙ্গে বিনোদ সনকর বলেন,” এটা হতাশায় বলছে। দিদি মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছে।” তিনি বলেন,” বিজেপি বিশ্বের বৃহত্তম রাজনৈতিক দল। ১৭ কোটি সদস্য রয়েছে। পঞ্চায়েত থেকে পার্লামেন্ট পর্যন্ত কার্যকর্তা রয়েছে। বুথ থেকে রাষ্ট্রীয়স্তর কার্যকর্তা রয়েছে। তাই প্রার্থী বাছাইয়ে সময় লাগবে না।” তিনি বলেন,” গত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় ৪২ শতাংশ ভোট পেয়েছে বিজেপি। বিধানসভা ভোটে ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পেয়ে বিজেপি সরকার গঠন করবে।”

আরও পড়ুন: আমি নমিনেটেড নই,ইলেকটেড’:শুভেন্দু অধিকারী

আবার বিজেপির রাজ্য সহ সভাপতি রাজু ব্যানার্জি এক ধাপ এগিয়ে এরাজ্যে মিম র প্রার্থী দেওয়া প্রসঙ্গে বলেন,” মিম কে মমতা ব্যানার্জি ভাড়া করে নিয়ে এসেছে।”

Related Articles

Back to top button
Close