fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মমতা ছটপুজোর নামে রাজনীতি করছেন, তোপ অধীরের

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছট পুজোর নামে রাজনীতি করছেন। তোপ দাগলেন সংসদীয় নেতা তথা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরি। বৃহস্পতিবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি সরাসরি তৃণমূল সুপ্রীমোর বিরুদ্ধে এই আভিযোগ আনেন। অধির বলেন, ‘ছট পুজো নয় ভোট পুজো করে আপনি বাঙালি বা বিহারী কারোর ভালো করছেন না। বাংলার বারোটা বাজিয়ে দিচ্ছেন।’ উল্লেখ্য, রবিন্দ্র সরোবরে ছট পুজো আয়োজনের অনুমতি চেয়ে দ্বারস্থ হয়েছিল কেএমডিএ। কিন্তু ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইবুনাল তা খারিজ করে দেয়।

রবীন্দ্র সরোবরকে ছট পুজোর জন্য খুলে দিতে চাইছে রাজ্য সরকার। রবীন্দ্র সরোবরে ছট পুজো নিয়ে এদিন মমতাকে কটাক্ষ করে অধীর বলেন, ‘ইদানিং বাংলায় পুজোর নামে রাজনীতি হচ্ছে। যা আগে ছিল না। এখন দুর্গাপুজো আছে, তার সঙ্গে রাজনীতিও জড়িয়ে গেছে। তৃণমূল নেত্রী সবাইকে এখন সেই গগলস পড়িয়ে দিয়েছে। সেটা দিয়েই এখন উৎসব অনুষ্ঠান দেখতে হবে। বাংলায় সকলের উৎসবে আনন্দ করার রীতি আছে। কিন্তু পুজোর নামের মমতা ভোট পুজো করছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অবদানে রবীন্দ্র সরোবর, দক্ষিণ কলকাতার ফুসফুস, ধর্মীয় আচার পালনের মাধ্যমে পরিবেশ ধ্বংস হতে চলেছে। তাতে ভ্রূক্ষেপ নেই। সস্তার রাজনীতি করে উনি শুধু বিহারী ভোট বাক্সে পুরতে ব্যস্ত। যেমন মুসলিম ভোট পকেটে পুরতে দুর্গাপুজো বন্ধ করে মহরমের মিছিল করিয়ে ছিলেন। কোনও মুসলমান কোনওদিন বলেননি দুর্গা পূজার বিসর্জন বন্ধ করে মহরমের মিছিল করুন, এই নিয়ম আপনি তৈরি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, ধর্ম নিয়ে ভোটের রাজনীতি বন্ধ করুন আপনি।’

রবীন্দ্র সরোবরের দূষণ মুক্ত বাতাসে প্রতিদিন বহু মানুষ প্রাতঃভ্রমণ ও সন্ধ্যা ভ্রমণ সারেন। এমত অবস্থায় গত বছরের মত পরিস্থিতি হলে দুষিত হয়ে পরবে বাতাবরন। এ প্রসঙ্গে আধির বলেন, ‘সরকার চাইলেই বিকল্প ব্যবস্থা করতে পারে। করছেনা কেন? রবিন্দ্র সরোবরে বিসর্জন দিতে না দিলে যে আপনাকে পশ্চিমবঙ্গে বসবাস কারি বিহারী মানুষেরা ভোট দেবে না তেমনটা নয়। যেমন দিল্লি তে দূষণ রুখতে যমুনা নদিতে ভাসান বন্ধ। কিন্তু তা বলে কি দিল্লিতে দুর্গা পুজো হয়না। সেখানেও পুজো হয়। সরকার বিকল্প ব্যবস্থা নিয়েছে ভাসানের জন্য। এখানেও তেমন ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এসব করে আখেরে কলকাতাকে দূষিত করছেন।’

Related Articles

Back to top button
Close