fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হুগলিতে করোনার দাপটে থরহরি কম্প প্রশাসন

তাপস মণ্ডল, হুগলি: করোনা আক্রান্ত হয়ে চন্দননগরের ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট দেবদত্তা রায়ের মৃত্যুর পরই নড়েচড়ে বসল হুগলি জেলা প্রশাসন।
চন্দননগরের ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট দেবদত্তা রায়ের সংস্পর্শে আসা আটজন কর্মীকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে বলে খবর মিলেছে। পাশাপাশি চন্দননগর এসডিও অফিস বিল্ডিং স্যানিটাইজেশন করা হয়েছে। মঙ্গলবার চন্দননগরের এসডিও সিঙ্গুর, হরিপাল ও তারকেশ্বরের বিডিওদের নিয়ে নিয়ে বৈঠক করেন বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি এদিন চুঁচুড়া এসডিও অফিসে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট দেবদত্তার মৃত্যুর ঘটনায় একটি শোকসভা করা হয় বলে খবর মিলেছে।
অন্যদিকে মঙ্গলবার করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্য হয়েছে এক প্রাথমিক স্কুল শিক্ষিকার। নাম সৌমি সাহা (৩৬)। বাড়ি চন্দননগর থানার মুন্সিপুকুর এলাকায়।
মঙ্গলবার সকাল ১০টা নাগাত ব্যান্ডেল ইএসআই হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। তিনি পোলবা কাশ্বরা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ছিলেন। তিনি হুগলি জেলা প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের সক্রীয় কর্মী ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। মাসখানেক আগে লকডাউন চলাকালিন সৌমি সাহার বিয়ে হয়। বেশ কয়েক দিন ধরে প্রবল শ্বাস কষ্টে তিনি ভুগছিলেন।
অন্যদিকে করোনা আতঙ্কে বন্ধ হয়ে গিয়েছে শ্রীরামপুর পুরসভা ও কোন্নগর কানাইপুরের পোষ্ট অফিস। কানাইপুরে করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধি পাওয়ায় পোষ্ট অফিস আগামী দশ দিন বন্ধ রাখার নটিশ ঝোলানো হয়েছে। পাশাপাশি শ্রীরামপুর পুরসভায় ট্যাক্স বিভাগে এক কর্মী বেশ কিছু দিন ধরে শ্বাস কষ্টে ভুগছিলেন। মঙ্গলবার তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসায় বাকি কর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ায়। বিষয়টি তারা শ্রীরামপুর পুরসভার পুর-প্রশাসক অমিও মুখোপাধ্যায় জানান।
এই ঘটনায় শ্রীরামপুর পুরসভা আগামী সাত দিনের জন্যে বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে শ্রীরামপুর থানার একজন সাবইনেস্পেক্ট্র করোনা আক্রান্ত সন্দেহে শ্রীরামপুর শ্রমজীবী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। এই ঘটনায় শ্রীরামপুর থানায় সপ্তাহে একদিন করে স্যানিটাইজেশনের ব্যাবস্থা করা হয়েছে বলে খবর মিলেছে।

Related Articles

Back to top button
Close