fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দিঘা মোহনায় দেখা মিলল রুপোলী শস্য ইলিশ

মিলন পণ্ডা ও বিষ্ণুপদ পণ্ডা, দিঘা (পূর্ব মেদিনীপুর):  বছরের প্রথম মরশুমে দেখা মিলল রুপোলী শস্য ইলিশের। সোমবার সকালে এশিয়ার বৃহত্তম মৎস্য নিলাম কেন্দ্র দিঘা মোহনায় প্রায় দুই কুইন্টাল ইলিশ পাইকারি বাজারে বিক্রি হল। বছরে প্রথমে ইলিশ আমদানি হওয়ায় খুশি মৎস্যজীবী থেকে খাদ্য রসিক বাঙালি।

 

 

সোমবার সকালে বেশ কিছু ট্রলার দিঘা মোহনায় আসে।  জানা গিয়েছে, মৎস্যজীবীদের জালে ৮০০ গ্রাম থেকে ১ কেজি ওজনের ইলিশ ধরা পড়ে। ইলিশ পাইকারি বাজারে ৬০০ থেকে ৮০০ টাকায় বিক্রি হয়। দিঘার পাইকারি বাজারে স্থানীয় ক্রেতা থেকে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ভিড় জমাতে থাকে। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পাইকারি বাজারের ইলিশ বিক্রি করা হয়। দিঘা মোহনা ট্রলারগুলি দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা ডায়মন্ড হারবার থেকে এসেছে বলে জানা গিয়েছে।

 

 

প্রসঙ্গত, গত বছরে মৎস্যজীবীদের জালে খুব একটা ইলিশ ধরতে পারেনি। ইলিশ মাছ ধরতে না পারায় অনেক ট্রলার মালিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছে। দিঘা মোহনার অনেক মৎস্যজীবী সমুদ্রে পাড়ি দিয়েছেন মৎস্য শিকারের জন্য। কিন্তু অল্পসংখ্যকই ট্রলার ফিরে এসেছে। যারা ফিরে এসেছেন তাদের ট্রলার খুব একটা বেশি ইলিশ ধরতে পারেনি। মৎস্যজীবী সংগঠনের নেতা শ্যামসুন্দর দাস বলেন, শুধু দিঘায় নয় চব্বিশ পরগনার ডায়মণ্ড হারবার-এর সমস্ত জায়গায় ইলিশ উঠবে। পরিবেশ অনুকূল রয়েছে, সমুদ্রের ইলিশ ধরার সব রকমের স্বাভাবিক রয়েছে। তাই প্রচুর পরিমাণে ইলিশ উঠবে এটাই আশা করছি। এক ট্রলার মালিক মনোরঞ্জন প্রামানিক বলেন, পূর্বদিকে হাওয়া রয়েছে তাই সমুদ্রের ইলিশ আমদানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

 

 

এদিকে আবার পুর্ব মেদিনীপুর জেলার শিল্পনগরী হলদিয়া, ব্রজলালচক, চৈতন্যপুর ও দুর্গাচকের  একাধিক বাজারে দেখা মিলেছে পদ্মার ইলিশ। ওই বাজারে ছোট বড় মাপের ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে।স্থানীয় মৎস্য ব্যবসায়ী বলেন বাংলাদেশ থেকে প্রায় দেড়শ’ কিলো মতন ইলিশ মাছ হলদিয়া টাউনশিপে আনা হয়েছে।বাজার ইংলিশ দেখতে পেয়ে এদিন সকাল থেকেই স্থানীয় বাসিন্দাদের মুখে হাসি ফুটেছে।

Related Articles

Back to top button
Close