fbpx
দেশহেডলাইন

দেওয়া হচ্ছে পচা খাবার, ট্রেন লেট, বিক্ষোভে শামিল পরিযায়ী শ্রমিকরা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বিক্ষোভে শামিল হলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। অভিযোগ, ট্রেনে তাদের দেওয়া হচ্ছে পচা খাবার। কামরার অবস্থাও খুব খারাপ। সবচেয়ে বড় কথা, ট্রেন চলছে খুব ধীর গতিতে। মাঝে মাঝেই দাঁড়িয়ে থাকছে। কখন গন্তব্যে পৌঁছবে জানা যাচ্ছে না। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন নিয়ে এমনই ভুঁড়ি ভুঁড়ি অভিযোগ করলেন উত্তরপ্রদেশ ও বিহারের পরিযায়ী শ্রমিকরা। তাঁরা ট্রেন থেকে নেমে বিক্ষোভ দেখালেন। ট্রেনলাইন অবরোধও করলেন কয়েকশ শ্রমিক।

উল্লেখ্য, অন্ধ্রের বিশাখাপত্তনম থেকে ওই শ্রমিকরা বাড়ি ফিরছিলেন। দীনদয়াল উপাধ্যায় রেলওয়ে জংশনে তাঁদের ট্রেন ১০ ঘণ্টা দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। বিহারী শ্রমিকরা ট্রেন থেকে নেমে মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। ধীরেন রাই নামে এক পরিযায়ী শ্রমিক বলেন, শুক্রবার রাত ১১ টার সময় ট্রেন দীনদয়াল উপাধ্যায় স্টেশনে পৌঁছায়। আমরা গত দু’দিন খাবার পাইনি। ট্রেনে ওঠার জন্য প্রত্যেককে ১৫০০ টাকা করে দিতে হয়েছে।

অপর একটি ট্রেন মহারাষ্ট্রের পানভেল থেকে উত্তরপ্রদেশের জৌনপুরে ফিরছিল। বারাণসীর কাছে সেই ট্রেনটিকেও ১০ ঘণ্টা দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। জানা  যায়, পরিযায়ী শ্রমিকরা লাইনে বসে আছেন। অন্য ট্রেন আসা সত্ত্বেও তাঁরা উঠতে চাইছেন না। পরে পুলিশ এসে তাঁদের তুলে দেয়। তাঁদের খাবার দেওয়া হয়। পরে ট্রেনটি ফের জৌনপুরের উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে।

ট্রেনের এক যাত্রী গোবিন্দ কুমার রাজভর বলেন, “মহারাষ্ট্রে আমরা খাবার পেয়েছি। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে কিছু পাইনি। বারাণসীতে প্রথমে ট্রেনটি সাত ঘণ্টা দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছিল। পরে ট্রেন চলতে শুরু করে। কিছুক্ষণ গিয়ে আবার দাঁড়িয়ে থাকে দু’ঘণ্টা। আবার চালু হয়ে কিছুক্ষণ পরে থেমে যায়।”

শুক্রবার সন্ধ্যায় পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে একটি ট্রেন গুজরাত থেকে ফিরছিল বিহারে। উত্তরপ্রদেশের কানপুর জংশনে শ্রমিকদের খাবার দেওয়া হয়েছিল। স্টেশনেই তাঁরা খাবার ফেলে দেন। অভিযোগ, তাঁদের পচা খাবার দেওয়া হয়েছে। কানপুর স্টেশনে তোলা ভিডিও চিত্রে দেখা গিয়েছে, উত্তেজিত শ্রমিকরা রেলের নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে তর্ক করছেন। তাঁদের অভিযোগ, দীর্ঘ যাত্রাপথে পানীয় জল পাননি। শৌচাগারেও জল ছিল না। যে খাবার দেওয়া হয়েছিল, তা সম্ভবত রান্না করা হয়েছে চার-পাঁচদিন আগে।

উত্তরপ্রদেশ সরকার জানিয়েছে, ৯৩০ টি শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনে ১২ লক্ষ ৩৩ হাজার শ্রমিককে রাজ্যে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর জন্য ১ মে থেকে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালাচ্ছে ভারতীয় রেল। মোট ২৩১৭ টি ট্রেনে ৩১ লক্ষ শ্রমিককে বাড়ি ফেরানো হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close