fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

শুভাশীষের হাত ধরে ভাঙড়ে তৃণমূলে যোগদান দিলেন একাধিক ব্যক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ভাঙড়: কয়েক মাসে আগে ভাঙড়ে তৃণমূলের কিছু নিচু তলার কর্মীদের বিজেপিতে সামিল করে ভাঙড়েরই বুকে ঘাঁটি গেড়েছিলেন বিজেপির রাজ‍্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে বিধানসভা নির্বাচন এগিয়ে আসতেই ভাঙড়ের বুকে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। গেরুয়া শিবির সহ সিপিএমে ভাঙন ধরিয়ে কয়েকশো কর্মী জেলা সভাপতি শুভাশীষ চক্রবর্তী তৃণমূল নেতা নান্নু হোসেনের হাত ধরে তৃণমূলে যোগদান করলেন।
শনিবার ভাঙড়ের শোনপুরে তৃণমূলের সংখ্যালঘু সেলের আয়োজনে কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে এক জনসভা অনুষ্ঠিত হয়।তৃণমূল কর্মীদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতিতে জনসভা উপচে পড়ে।এই সভায় উপস্থিত ছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার তৃণমূলের সভাপতি তথা সাংসদ শুভাশীষ চক্রবর্তী সহ ভাঙড়ের জেলা পরিষদ সদস্য নান্নু হোসেন। এদিনের এই সভায় শুভাশীষ সহ নান্নু হোসেনের হাত থেকে তৃণমূলের পতাকা নিয়ে কয়েকশো বিজেপি এবং সিপিএম কর্মীরা তৃণমূলে যোগদান করেন।
এদিনের এই সভায় শুভাশীষ চক্রবর্তী বলেন, “দিলীপ ঘোষ ভাঙড়ে পাগলামী করতে একবার এসেছিল মহাসীনের ভয়ে পালিয়েছে।এই ভাঙড় সহ বাংলায় বিজেপির কোন স্হান নেই।”দুর্যোগ কে উপেক্ষা করে সভা স্হল কানায় কানায় পূর্ণ থাকায় নান্নু হোসেন, মিজানুর আলম, আব্দুর রহিম সহ মহসীন গাজীদের ধন্যবাদ দেন জেলা সভাপতি।এই সভায় দাঁড়িয়ে ভাঙড়ের বদনাম দূর করার জন্য স্বচ্ছ ভাবমূর্তির মানুষ কে ২০২১ শে ভাঙড়ের বিধায়ক করার দাবি করেন তৃণমূল নেতা নান্নু হোসেন।এর পাশাপাশি তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন।

Related Articles

Back to top button
Close