fbpx
দেশহেডলাইন

এবার কর্নাটকে হবে হনুমানের ২১৫ মিটারের মূর্তি! খরচ প্রায় ১২০০ কোটি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বুধবার এক ঐতিহাসিক দিনের সাক্ষী থেকেছে গোটা ভারতবাসী।এদিন ধূমধাম করে অযোধ্যায় হয়ে গেল রাম মন্দিরের ভূমিপুজো। এরপর থেকে শুরু যাবে বিলাসবহুল সেই মন্দির নির্মাণের কাজ। রাম মন্দির সংক্রান্ত যাবতীয় ঘটনার রেশ এখনও চলছে। এই পরিস্থিতিতে এবার কর্নাটকের হাম্পিতে তৈরি হল হনুমান জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্ট। ঘোষণা করা হয়েছে, রামের যেমন মূর্তি হবে অযোধ্যায়, তেমনই হাম্পিতেও হবে হনুমানের আকাশছোঁয়া মূর্তি।

তবে, এও বলা হয়েছে, রামের মূর্তির চেয়ে ৬ মিটার কম হবে হনুমান মূর্তির উচ্চতা। কারণ ভক্তের মূর্তি ভগবানের থেকে উঁচু হতে পারে না কোনও মতেই। কিন্তু কেমন হবে সেই বজরংবলীর মূর্তি? হনুমান জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের তরফে জানানো হয়েছে, হাম্পিতে যে মূর্তি তৈরি হবে, তার উচ্চতা হবে ২১৫ মিটার। আর অযোধ্যায় রামের মূর্তি ২২১ মিটার হওয়ার কথা।

          আরও পড়ুন: বাড়ছে সংক্রমণ, বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত ১.৯২ কোটি মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৭ লক্ষ

সূত্রের খবর, হনুমানের মূর্তিটি তৈরি হতে সময় লাগবে আনুমানিক ৬ বছর। আর খরচ? আকাশছোঁয়া সেই মূর্তি তৈরি করতে খরচ পড়বে অন্তত ১২০০ কোটি টাকা! হনুমান জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের সাধু সরস্বতী স্বামীর কথায়, ‘ভগবান রামচন্দ্রের শাশ্বত ভক্ত হনুমানের মূর্তির উচ্চাত পরিকল্পিতভাবেই ৬ মিটার কম করা হবে।

এখনও পর্যন্ত খবর, কর্নাটক সরকারও এই মূর্তি তৈরির কিছুটা ব্যয়ভার বহন করবে, বাকি টাকা অনুদান হিসেবে সংগ্রহ করবে ট্রাস্ট। এই ট্রাস্টই মূর্তির যাবতীয় দায়িত্বে থাকবে। এমনকী অর্থ তুলতে সারা ভারতজুড়ে হনুমান রথ যাত্রা করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। সরকারের কাছে এই সংক্রান্ত প্রস্তাবও পাঠানো হয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close