fbpx
কলকাতাহেডলাইন

কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল এবার পুরোপুরি কোভিড হাসপাতাল, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে করোন সংক্রামিত রোগীর সংখ্যা যেভাবে বাড়ছে, তাতে কোভিড-হাসপাতালের সংখ্যা ও পরিষেবা বাড়ানোও জরুরি হয়ে উঠেছে। তাই কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল এবার পুরোপুরি কোভিড হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহৃত হবে। আগামী কাল, ৭ মে থেকেই ঘটবে এই বদল। আপাতত ৫০০টি বেড নিয়ে শুরু হবে কোভিড চিকিত্‍সার কাজ। ৬৭টি কোভিড হাসপাতাল ইতিমধ্যেই রয়েছে রাজ্যে, এটি হবে ৬৮-তম। বুধবার দুপুরে টুইট করে এমনটাই জানিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বস্তুত, এই সিদ্ধান্ত আগেই নেওয়া হয়েছিল রাজ্য সরকারের তরফে।

ইতিমধ্যেই সরকারি ও বেসরকারি ক্ষেত্র মিলিয়ে রাজ্যে প্রায় ৭০টি হাসপাতাল করোনার চিকিৎসার জন্য চিহ্নিত করা হয়েছে। সেখানে বেডের সংখ্যা ৮ হাজারের বেশি। এবার মেডিকেল কলেজের মতো প্রথম সারির হাসপাতালকে করোনা চিকিৎসার জন্য চিহ্নিত করে করোনা লড়াইয়ে আরও একধাপ এগোল রাজ্য সরকার।

আরও পড়ুন: শ্রমিক স্পেশালে একটা বিশেষ সম্প্রদায়কে ফিরিয়ে আনছেন, বাকিরা বঞ্চিত কেন? দিদিকে তোপ দিলীপের

স্বাস্থ্য ভবন জানিয়েছিল, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মেডিক্যাল কলেজকে খালি করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নতুন করে রোগী ভর্তি নেওয়া বন্ধ হবে। মেডিক্যাল কলেজের সুপার স্পেশ্যালিটি বিল্ডিং ও নতুন হস্টেল বর্তমানে ফাঁকা রয়েছে। তাই এই দুটি বিল্ডিংকেই প্রথমে করোনা আক্রান্তদের চিকিত্‍সার জন্য ব্যবহার করা হবে।আজ, বুধবার বিকেলের সাংবাদিক বৈঠক অনুয়ায়ী এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা অ্যাকটিভ ১০৪৭ জন, মারা গেছেন ৭২ জন। ফলে অল্প সময়ে সংক্রমণের হার অনেকটাই বেড়েছে।

এর মধ্যেই রাজ্যে ৬৭টি হাসপাতালকে কোভিড হাসপাতাল করে তোলা হয়েছে। সেখানেই নতুন সংযোজন হবে মেডিক্যাল কলেজ। এই ব্যাপারে বিশেষজ্ঞ চিকিত্‍সকদের একাংশের মতে, যদি কলকাতা মেডিক্যাল কলেজকে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিত্‍সা কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা যায়, তাহলে বিশেষজ্ঞ চিকিত্‍সকের পাশাপাশি এখানকার উন্নতমানের যন্ত্রপাতি, ভেন্টিলেশন, আইসিইউ, সিসিইউ সব ব্যবহার করা যাবে।

Related Articles

Back to top button
Close