fbpx
আন্তর্জাতিকএকনজরে আজকের যুগশঙ্খহেডলাইন

মস্কোয় তালিবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের, আফগানদের পাশে থাকার বার্তা নয়াদিল্লির

নিজস্ব প্রতিনিধি: আফগানিস্তানের দখল তালিবান নেওয়ার পর দু’মাস পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সে দেশের সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি ভারত। আসলে তালিবান নিয়ে আন্তর্জাতিক মহল কি সিদ্ধান্ত নেয়, সেদিকেই তাকিয়ে ছিল ভারত। এই পরিস্থিতিতে মস্কোয় তালিবানের সঙ্গে বৈঠক সারল ভারতের প্রতিনিধি দল। বারবার আন্তর্জাতিক মঞ্চে আফগানিস্তান থেকে সন্ত্রাসের বাতাবরণ নিয়ে সরব হয়েছে মোদি সরকার। তাই এই বৈঠক নতুন দিশা দেখাতে পারে বলেই মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল।

বুধবার রাশিয়ার রাজধানীতে ভারতের সঙ্গে বৈঠকের পর তালিবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ টুইটারে জানান, ভারত মানবিকতার খাতিরে আফগানিস্তানকে সাহায্য পাঠাতে রাজি। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর অবশ্য আগেই আফগান জনগণকে খাবার, ওষুধপত্র ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিস দিয়ে সাহায্য করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। রাষ্ট্রসংঘের কোনও সংস্থার হাত ধরেই ভারত তাদের সাহায্য পাঠাবে বলে সূত্রের খবর।

আফগানিস্তানের নতুন নাম ‘ইসলামিক এমিরেটস অফ আফগানিস্তান’-এর মুখপাত্রও টুইট করে জানান, ভারত ও তালিবান দু’পক্ষই নিজেদের উদ্বেগের কথা প্রকাশ করেছে। কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে একমত হয়েছে দুই দেশ। মস্কোর বৈঠকে আফগানিস্তানের তরফে প্রতিনিধিত্ব করেন উপ-প্রধানমন্ত্রী আবদুল সালাম হানাফি। আর ভারতের তরফে ছিলেন বিদেশমন্ত্রকের যুগ্মসচিব জে পি সিং।

আফগানিস্তান নিয়ে মস্কোয় হওয়া এই আলোচনা চক্রে দশটি দেশ অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে ভারত, চিন ও পাকিস্তান।

উল্লেখ্য আফগানিস্তানের তালিবান নেওয়ার পরেই হিংসা চরম আকার নেয় সে দেশে। প্রাণ বাঁচাতে হাজার হাজার মানুষ দেশ ছাড়তে শুরু করেন। মহিলাদের ওপর নিত্যনতুন ফতোয়া জারি করে তারা। ফতোয়া না মানলেই নির্বিচারে হত্যা করা হয় পুরুষ-নারী সকলকেই। এই অবস্থায় মস্কোয় তালিবানের সঙ্গে ভারতের বৈঠক বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

Related Articles

Back to top button
Close