fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই চলছে মিটিং, মিছিল, বিজেপি, তৃণমূল একে অপরকে আক্রমণ

মিল্টন পাল, মালদা: করোনা আবহে রাজ্যের শাসক দল বিভিন্ন ইস্যুতে শুরু করেছে মিটিং, মিছিল। সেখানে করোনা আবহে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক পড়ার নির্দেশ থাকলেও তার কোন কিছুর বালাই নেই। শনিবার হাথরাশ কান্ডের প্রতিবাদ মিছিলে এমনই ছবি দেখা গেল জেলা জুড়ে। পাল্টা তৃণমূলের অভিযোগ বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মুর নেতৃত্বে কৃষি বিলের সমর্থনে মিছিল করা হয় পুরাতন মালদায়। সেখানে মাক্স না পড়ে সোশ্যাল ডিসটেন্স না মেনে মিছিল করার অভিযোগ এনেছে তৃণমূল।পাল্টা তৃণমূলকে বিঁধলেন বিজেপি সাংসদখগেন মুর্মু।

জানা গিয়েছে যে, চলছে করোনা অতিমারি। যার ফলে প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছে সাধারন মানুষ থেকে শুরু করে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা। করোনা থেকে মুক্তি পেতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার বিভিন্ন রকম নির্দেশিকা জারি করেছে। ইতিমধ্যে রাজ্যে মেট্রো, সিনেমা হল, বাজার খোলার ছাড়পত্র মিলেছে।  এরই মধ্যে হাথরাশ কান্ডে রাজ্যের নির্দেশে মালদা জেলার সমস্ত ব্লকে প্রতিবাদ ও ধিক্কার মিছিলের আয়োজন করা হয় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে।   এদিন মৌসম নুরের নির্দেশে ব্লক নেতৃত্ব মিছিল করে।

[আরও পড়ুন- গৃহবধূকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার যুবক]

করোনা আবহে কোন রকম সামাজিক বিধি মানা হয়নি বলে অভিযোগ বিজেপির। পাল্টা তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ, কৃষি বিলের সমর্থনে শনিবার পুরাতন মালদায় মিছিল করে বিজেপি। এই মিছিলে নেতৃত্ব দেন উত্তর মালদার বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু। অভিযোগ এই মিছিলে অংশগ্রহণকারী অধিকাংশ মানুষের মুখেই ছিলনা মাক্স। সামাজিক দূরত্ব বিধি ও মানা হয়নি বলে অভিযোগ।

আর বিজেপির এই মিছিলকে কটাক্ষ করেছেন জেলা তৃণমূল সভানেত্রী তথা রাজ্যসভার সাংসদ মৌসম নুর। তিনি বলেন,মানুষের জীবনকে গুরুত্ব না দিয়ে নিম্নমানের রাজনীতি করছে বিজেপি।নিম্নমানের রাজনীতি করার জন্য নিজেদের কর্মীদের জীবন নিয়ে চিন্তাভাবনা করছেন না বিজেপি নেতৃত্ব। সেই কারনে তারা কোন বিধি মানে না।

অনেকের মুখে মাক্স ছিলনা কার্যত সে কথা স্বীকার করে নিয়েছেন মালদা উত্তরের বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু। যদিও কেন্দ্র সরকার যখন লকডাউন ঘোষণা করে তখন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী করোনা বিধি মানেননি বলে অভিযোগ বিজেপির। পশ্চিমবঙ্গে করোনার বাড়বাড়ন্তের জন্য দায়ী তৃণমূল পাল্টা কটাক্ষ করেন বিজেপি সাংসদ।

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close