fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউনের মাঝে জমি বিবাদের জেরে প্রতিবেশীকে সুপারি কিলার দিয়ে পিটিয়ে খুন, এলাকায় উওেজনা

মিলন পণ্ডা, ভগবানপুর (পূর্ব মেদিনীপুর): জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরে প্রতিবেশী এক ব্যক্তিকে সুপারি কিলার দিয়ে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠলো আর এক প্রতিবেশী ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এই ঘটনার পর গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার পর অভিযুক্ত তার পরিবারের সদস্যরা গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে যায়। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ভগবানপুর থানার পশ্চিম সরবেড়িয়া গ্রামে।

 

 

পুলিশ জানিয়েছে মৃত সেখ শাজাহান মহম্মদ (৫৫)। এলাকায় ব্যাপক উওেজনা থাকায় পুলিশ পিকেট বাসানো হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূএে জানা গিয়েছে, গ্রামের বাসিন্দা সেক শাহাজান মহম্মদ ও প্রতিবেশী আব্বাশ উদ্দিনের সঙ্গে জমি সংকান্ত বিবাদ ছিল দীর্ঘদিনের। সোমবার সকালের এসে দেখে সেক শাহাজান অনেকটা জায়গা বেড়া দিয়ে ঘিরে নিয়েছে প্রতিবেশী বলে অভিযোগ। জায়গা বেড়া দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে প্রতিবেশীর সঙ্গে সেক শাহাহানের বচসা শুরু হয়ে যায়। অভিযুক্ত পরিবারের বাইরে থেকে সুপারি কিলার নিয়ে এসে মাটিয়ে ফেলে শাজাহানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ।

 

চিৎকার শুনে ছেলে ও প্রতিবেশীরা ছুটে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় সেক শাজাহানকে উদ্ধার করে ভগবানপুর গ্রামীন হাসপাতালের ভর্তি করেন। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে ভগবানপুর থানার বিশাল পুলিশবাহিনী। ঘটনার বেগতি বুঝে বাড়ির তালা বন্ধ করে এলাকায় ছেড়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তের পরিবারের সদস্যরা।

 

 

ব্যক্তির অবস্থায় অবনতি সোমবার বিকালে সেক শাজাহানকে তমলুক জেলা হাসপাতালে স্থান্তরিত করেন। সেখানে আবার অবস্থায় অবনতি হলে চিকিৎসক কোলকাতার স্থান্তরিত করেন চিকিৎসক। মঙ্গলবার সকালে কোলকাতার হাসপাতালের সেক শাজাহান মহম্মদ মৃত্যু হয়। মৃত শাজাহান ছেলে অভিযোগ করে বলেন বাবা জমি বেড়া দেওয়ার কথা জানতে চাইলে প্রতিবেশী ও বাইক থেকে লোক নিয়ে এসে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মারধর করে। মাটিয়ে লুটিয়ে পড়া অবস্থায় কয়েকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে কয়েকজন মিলে মারধর করতে থাকে। বাবাকে বাঁচাতে গেলে আমাকে ছুরি আঘাত করে। কোন রকমের উদ্ধার করে স্থানীয় হাডপাতালের ভর্তি করি ও নিজেও চিকিৎসা করাই। দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে ছেলে থেকে স্থানীয় বাসিন্দারা।এদিন বিকালে মৃত ব্যাক্তি স্ত্রী ভগবানপুর থানার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

 

 

ভগবানপুর থানার ওসি প্রনব রায় বলেন, খাস জায়গা সংকান্ত গণ্ডগোল জেরে আহত অবস্থায় এক ব্যক্তির কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে। এলাকায় উওেজনা থাকার পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে। মৃত ব্যাক্তির স্ত্রী অভিযোগে ভিওিতে একটি খুনের মামলার রুজু করা হয়েছে। অভিযুক্তরা এলাকায় ছাড়া রয়েছে। তাদের খোঁজে জোরদার তল্লাশি শুরু করা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close