fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

লকডাউনে নকল অ্যালকোহল পান, মেক্সিকোতে মৃত্যু ৪০ জনের

মেক্সিকো সিটি: নকল অ্যালকোহল পান করার জেরে প্রায় ৪০ জনের মৃত্যু ঘটেছে মেক্সিকোতে। জানা গেছে, ‘মিথানল’ পান করার পরেই সকলে মৃত্যুর মুখে ঢলে পড়ে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পরার পর মেক্সিকোতে সব ধরনের অ্যালকোহল বিক্রি নিষিদ্ধ করা হয়। কিন্তু, তারপরেও গোপনে ভেজাল অ্যালকোহল বিক্রি চলছে। মেক্সিকোর পুইবলা শহরের মেয়র আর্টেমিও হার্নান্দেজ বলেন, কমপক্ষে ১৮ জন মারা গেছে ভেজাল অ্যালকোহল পান করে। কিন্তু, নগর কর্তৃপক্ষ ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে জানিয়েছে, ‘অ্যালকোহল পান করে অন্তত ২৫ জন এক শহরেই মারা গেছে।’

জানা যাচ্ছে, রেফিনো নামক মদ ভেজাল তৈরি করে বিক্রি করছিল অসাধু ব্যবসায়ীরা। অন্তত ২০০ লিটার ভেজাল মদ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। আরও অন্তত ৮০ জন ভেজাল মদ পান করে অসুস্থ হয়েছেন। মোরলস রাজ্যে অন্তত ১৫ জন ভেজাল মদ পান করে মারা গেছেন। সবমিলিয়ে মেক্সিকোতে ৪০ জনের বেশি মানুষ ভেজাল মদ পান করে মারা গেছেন।

করোনা সংকটকালে বিষাক্ত বা নকল মদ পান করে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। মেক্সিকো ছাড়া এই তালিকায় নাম লিখিয়েছে ইরান। ইরানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক রিপোর্টে প্রকাশ- করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে বিষাক্ত অ্যালকোহল পান করে ইরানে মৃত্যু হয়েছে ৭২৮ জনের।

আর এই মৃত্যু ঘটেছে, গত ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ এপ্রিলের মধ্যে। ইরানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র কিয়ানুস জাহানপুর জানিয়েছেন, ৫ হাজার ১১ জন বিষাক্ত অ্যালকোহল পান করে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তিনি বলেন, প্রায় ৯০ জনের চোখে সমস্যা দেখা দিয়েছে।

জানা যাচ্ছে, অ্যালকোহল হিসাবে বিষাক্ত মিথানল পান করছেন অনেকেই করোনা থেকে মুক্তির জন্য। কিন্তু, মিথানল সরাসরি পান করা বা ঘ্রাণ নেওয়া যায় না। সরাসরি পান করলে তা শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের ক্ষতি করে এবং মস্তিষ্কেরও ক্ষতি করে।

Related Articles

Back to top button
Close