fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নদিয়ায় আমফানে মৃত পরিবারদের হাতে আড়াই লাখ টাকার চেক তুলে দিলেন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়

অভিষেক আচার্য, কল্যাণী: আমফানের দাপটে নদীয়ার একাংশ আজ বিধ্বস্ত। লন্ডভন্ড অবস্থায় কল্যাণী সহ বহু এলাকা। মৃতের সংখ্যা ৬। প্রশাসনকে পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক করার নির্দেশ নদীয়ার জেলার পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের। শনিবার কল্যাণীর বিদ্যাসাগর মঞ্চে দলের বিধায়ক, সভাপতি ছাড়াও নদীয়া জেলা শাসক বিভূ গোয়েল, কল্যাণী মহকুমা শাসক ধীমান বাড়ৈ, রানাঘাট জেলা পুলিশ সুপার অনন্তনাগ সহ বহু কর্তা ব্যক্তিদের নিয়ে এক প্রশাসনিক বৈঠক করেন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের জানান, আমফানের তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে নদীয়ার বিভিন্ন জায়গা। ক্ষতি হয়েছে শস্যের। ভেঙে গিয়েছে বহু বাড়ি। মারা গিয়েছেন বেশ কয়েকজন। শুধু তাই নয় বিভিন্ন জায়গায় নেই বিদ্যুৎ, জলের ও সমস্যা রয়েছে। এই পরিস্থিতি থেকে কি করে দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরা যায় সেই নিয়েই এই প্রশাসনিক বৈঠক।

আরও পড়ুন: সিকিমকে আলাদা দেশ বলে দাবি দিল্লি সরকারের বিজ্ঞাপনে, জোর বিতর্ক

আমফানের দাপটে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা প্রায় ৮০। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, মৃতদের আড়াই লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় সেই আড়াই লক্ষ টাকা তুলে দিয়েছেন কল্যানীর ঘোড়াগাছার বাসিন্দা মৃত কেনা মন্ডলের পরিবারের হাতে। সাইক্লোনের দিন বাড়ির দেওয়াল চাপা পড়ে মৃত্যু হয় কেনা মন্ডলের।

পাশাপাশি নদীয়ার আরো পাঁচজন মৃত পরিবারের হাতে আড়াই লাখ টাকার চেক তুলে দেন রাজীববাবু। মৃতদের বাড়ি গিয়ে সেই চেক তুলে দেন তিনি। এই বিষয়ে রাজীববাবু বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে এই চেক তাঁদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। যাঁদের বাড়ি ঘর ভেঙে গিয়েছে তাঁদের ত্রিপল, চাদর দেওয়া হয়েছে। মৃতের পরিবাররা জানান, তাঁরা চেক পেয়েছেন। পেয়েছেন অন্যান্য সামগ্রীও। তবে পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close