fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

নাড্ডার কনভয়ে হামলা:‌ রাজ্যের মুখ্যসচিব, ডিজি-কে দিল্লিতে তলব!

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: জে পি নাড্ডার কনভয়ে হামলার ঘটনায় কড়া অবস্থান নিল কেন্দ্রীয় সরকার। এবার রাজ্য পুলিশের ডিজি এবং মুখ্যসচিবকে দিল্লিতে তলব করল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন কেন্দ্রীয় সরকার। সূত্রের খবর আগামী ১৪ ডিসেম্বর দিল্লি যেতে বলা হয়েছে মুখ্যসচিব এবং ডিজিকে। শুক্রবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে নিজের রিপোর্ট পাঠিয়ে দিয়েছেন। সুত্রের খবর সেই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, নাড্ডা-সহ অন্য বিজেপি নেতাদের উপযুক্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেনি রাজ্যের পুলিশ। এবং সার্বিকভাবে রাজ্যের নিরাপতার অবস্থা সন্তোষজনক নয়।

নাড্ডার সফরে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি নিয়ে সরব বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বরা। এর আগে কালই নাড্ডার নিরাপত্তার গাফিলতি অভিযোগ জানিয়ে স্বরাষ্ট্রদফতরকে চিঠি দেয় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এরপর সেই চিঠিই নবান্নে পাঠিয়ে কার্যত কৈফিয়ত চায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। হামলার ঘটনার পর খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে ফোন করেছিলেন। কৈলাস-সহ অন্যান্য নেতাদের খোঁজখবর নেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সঙ্গে কৈলাসকে দৃঢ়তার সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মোদি। হামলার পর কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে ফোন করেছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ  এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংও।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক মনে করছে, রাজ্যের নিরাপত্তার দায় মুখ্যসচিব এবং ডিজিপির। রাজনৈতিক বাধ্যবাধকতার জন্য কোনও ভিআইপির নিরাপত্তার সঙ্গে আপস করা যাবে না। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বীরেন্দ্রর কাছে আগামী ১৪ ডিসেম্বর পুরো ঘটনার রিপোর্ট তলব করা হবে। রিপোর্টে সন্তুষ্ট না হলে তাঁদের কড়া হুঁশিয়ারি দেওয়া হতে পারে। তাঁদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা হতে পারে বলেও সুত্রের খবর। প্রসঙ্গত, নাড্ডার সভায় হামলার জেরে উস্তি ও ফলতা থানায় দুটি স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের হয়েছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এই সাতজনই গতকাল হামলার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল সুত্রের খবর। গতকাল রাতভর তল্লাশি চালানো হয়েছে ডায়মন্ড হারবারের বহু এলাকায়। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে অন্য দুষ্কৃতীদের সম্পর্কে তথ্য জোগাড় করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি একেবারে ভেঙে পড়েছে বলে শুক্রবার সাত সকালে দিল্লিতে রিপোর্ট পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তারপরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক তলব করল ডিজি এবং মুখ্যসচিবকে। এর আগেও অনেক ঘটনায় রাজ্যের জবাবদিহি চেয়ে পাঠিয়েছিল কেন্দ্র। তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে বিস্তর চাপানউতোরও হয়েছে। তবে এবার সরাসরি মুখ্যসচিব ও ডিজিকে দিল্লি তলবকে তাত্‍পর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন অনেকে। গত দেড় বছরে অনেকবার রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান রাজ্যপাল অভিযোগ করেছেন, তিনি রিপোর্ট চাইলে সরকার তা দেয় না। অফিসারদের ডাকলে যান না। পাল্টা সরকারের তরফে বলা হয়েছে, সমস্ত রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘জঙ্গলরাজ খতম করব’, হুঙ্কার দিলীপের

রাজ্য পুলিশের তরফে অবশ্য দাবি করা হয়, জে পি নাড্ডার কনভয়ে কিছুই হয়নি। তবে ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছিল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছিলেন, হামলা নিয়ে নাটক করছেন বিজেপি নেতারা। তবে রাজ্যের এই যুক্তি মানতে নারাজ কেন্দ্রীয় সরকার। তাঁদের মতে, রাজ্যে কোনও ভিআইপি সফরে এলে তাঁর নিরাপত্তার যাবতীয় ভার স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের। সেই কারণেই ঘটনার দায় এড়াতে পারেন না রাজ্য পুলিশের ডিজি এবং মুখ্যসচিব। সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবারের ঘটনা নিয়ে প্রশাসনের এই দুই শীর্ষ আধিকারিকের ব্যাথ্যায় সন্তুষ না হলে তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করতে পারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।

Related Articles

Back to top button
Close