fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ফের পাকিস্তানে সংখ্যালঘু নিধন, খ্রিস্টান কিশোরীকে ধর্মান্তরিতকরণ করে বিয়ে মুসলিম ব্যক্তির

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ফের পাকিস্তানে সংখ্যালঘুদের প্রতি অত্যাচারের খবর পাওয়া গেল। পাকিস্তানে এক খ্রিস্টান কিশোরীকে জোর করে ধর্মান্তরিত করার অভিযোগ উঠল এক মুসলিম ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ১৩ বছরের এক খ্রিস্টান কিশোরী লাভ জেহাদের শিকার হল। প্রথমে তাঁকে অপহরণ করা হয়।এরপর জোর করে মুসলিম ধর্মান্তরিত করা হয় তাঁর। শুধু ধর্মান্তরিত নয়, তাঁকে এরপর বিয়েও করে ৪৫ বছরের ওই মুসলিম ব্যক্তি। মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করার পর তাঁকে উদ্ধার করা হয়। অবশেষে ওই কিশোরীর ঠিকানা হয় সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে।

[আরও পড়ুন- ভারতের বায়ুসেনার শক্তিবৃদ্ধি, ফ্রান্স থেকে আসছে আরও ৩ টি রাফাল বিমান]

জানা গিয়েছে, ১৩ বছরের ওই কিশোরীর বাবা-মা, ভাই ও অন্য দুই বোনের সঙ্গে করাচির রেলওয়ে কলোনি এলাকার একটি বাড়িতে থাকত। গত ১৩ অক্টোবর অন্য দুই বোনের সঙ্গে বাড়িতেই ছিল ওই কিশোরী। তাঁর বাবা ও মাকে এক আত্মীয় ফোন করে জানায় যে, তাঁদের মেয়েকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। বাধ্য হয়ে কিশোরীর পরিবার স্থানীয় থানায় নিখোঁজের অভিযোগ দায়ের করে। ১৩ বছরের ওই কিশোরীর মা অভিযোগ করে বলেন যে, আলি আজহার নামে তাঁদের এক প্রতিবেশী  দীর্ঘদিন ধরেই কিশোরীকে উত্ত্যক্ত করত।

ওই কিশোরী সাড়া না দেওয়ায় তাঁকে অপহরণ করা হয়। এরপর ওই কিশোরীকে ধর্মান্তকরণের পর বিয়ে করে আলি আজহার নামে ৪৫ বছরের ওই মুসলিম ব্যক্তি। এর আগেও একাধিকবার পাকিস্তানে সংখ্যালঘু হিন্দু এবং মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের কথা শোনা গিয়েছে। সংখ্যালঘু মেয়েদের ওপর চরম অত্যাচার করার অভিযোগ রয়েছে পাকিস্তানে।

 

Related Articles

Back to top button
Close