fbpx
দেশহেডলাইন

চিফ অব স্টাফ কমিটির চেয়ারম্যান পদে MM Naravane

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ চিফ অব স্টাফ কমিটির (Chief of Staff Committee) চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ করা হল সেনা প্রধান জেনারেল এমএম নারাভানে(MM Naravane)-কে। হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াতের প্রয়াণের পর পদটি শূন্য হয়ে পড়ে। সেই নিয়ে জল্পনা চলছিল। অন্যদিকে দেশের এত বড় গুরুত্বপূর্ণ একটি পদ, দীর্ঘদিন ফেলেও রাখা যায় না। সব দিক বিবেচনা করেই এই সিদ্ধান্ত।

এই মুহূর্তে তিন বাহিনীর যাঁরা প্রধান রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে সব থেকে সিনিয়র এমএম নারাভানে। তাই তাঁকে এই কমিটির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

প্রসঙ্গত, আইএএফ প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল ভি আর চৌধুরী ও নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল আর হরি কুমার দায়িত্ব নিয়েছেন যথাক্রমে ৩০ সেপ্টেম্বর ও নভেম্বরের ৩০ তারিখে।

সিডিএস বিপিন রাওয়াতের মৃত্যু পর, সেই পদের উত্তরসূরী কে হবেন তা নিয়ে জল্পনা কল্পনা চলছিল। চিফ অব স্টাফ কমিটির চেয়ারম্যান হলেন সেনা প্রধান জেনারেল এমএম নারাভানে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে ক্ষমতায় দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তিন বাহিনী অর্থাৎ সেনাবাহিনী, বায়ুসেনা ও নৌসেনার মধ্যে সমন্বয়, পরিবহণ, প্রশিক্ষণ, সহায়তা পরিষেবা, যোগাযোগ এবং রক্ষণাবেক্ষণ সহ একাধিক বিষয়ে নজরদারি ও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার জন্যই চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ বা সিডিএস পদ তৈরির সিদ্ধান্ত নেন। আগে চিফ অব স্টাফ কমিটির চেয়ারম্যান পদই সামরিক বাহিনীর শীর্ষ পদ ছিল। সিডিএস পদ তৈরির আগে তিন বাহিনীর প্রধানদের মধ্যে যিনি প্রবীণতম হতেন, তাকেই চিফ অব স্টাফ কমিটির চেয়ারম্যান পদে বসানো হত। কিন্তু বিপিন রাওয়াতের সিডিএস পদে দায়িত্ব গ্রহণের পর সেই নিয়মে পরিবর্তন হয়।

গত ৮ ডিসেম্বর তামিলনাড়ুর কুন্নুরে এক মর্মান্তিক সেনা কপ্টার দুর্ঘটনায় প্রয়াত হন ভারতের প্রথম প্রতিরক্ষা প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াতের। ওই একই দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় তাঁর স্ত্রী মধুলিকার রাওয়াতের। বিপিন রাওয়াত সহ মোট ১৪ জন কপ্টারে ছিলেন। সকলেরই মৃত্যু হয় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনায়। ব্যাঙ্গালুরুতে সেনা হাসপাতালে প্রায় সাতদিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে প্রয়াত হন গ্রুপ ক্যাপ্টেন বরুণ সিং।

Related Articles

Back to top button
Close