fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

স্থগিত নতুন সব প্রকল্প, করোনার ধাক্কা সামলাতে ঘোষণা মোদি সরকারের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মহামারির জোর ধাক্কা লেগেছে দেশের অর্থনীতিতে। সংক্রমণে রাশ টানা না গেলেও পরিস্থিতির চাপে ধীরে ধীরে হলেও স্বাভাবিক হচ্ছে সবকিছু। এই পরিস্থিতিতে খরচে লাগাম টানতে বাধ্য হলো কেন্দ্রীয় সরকার। এক বছর নতুন কোনও সরকারি প্রকল্প শুরু হবে না। জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক । করোনভাইরাস মোকাবিলার কারণেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অর্থ মন্ত্রক জানিয়েছে, শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনা এবং আত্মনির্ভার ভারত অভিযান প্যাকেজ এবং অন্য কোনও বিশেষ প্যাকেজে ব্যয়ের অনুমতি দেওয়া হবে। অন্য মন্ত্রকগুলিকেও নতুন প্রকল্পের আবেদন জানাতে নিষেধ করা হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, “২০২০-২১ অর্থবর্ষে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ প্যাকেজ, আত্মনির্ভার ভারত অভিযান প্যাকেজ এবং অন্যান্য বিশেষ প্যাকেজের আওতাধীন প্রস্তাব ব্যতীত আর কোনও প্রকল্প বা সাব স্কিম শুরু করা উচিত নয়। অন্য কোনও প্রকল্পের নীতিগত অনুমোদন এই আর্থিক বছরে দেওয়া হবে না। ইতিমধ্যে মূল্যায়ন / অনুমোদিত নতুন প্রকল্পগুলির সূচনা এক বছরের জন্য স্থগিত থাকবে ৩১ মার্চ, ২০২১ পর্যন্ত বা পরবর্তী যে কোনও আদেশের আগে পর্যন্ত।” এছাড়াও বাজেটে অনুমোদিত প্রকল্পগুলিও আগামী বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত স্থগিত থাকবে। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে এই নির্দেশের ব্যতিক্রম করতে হলে অনুমোদন নিতে হবে। গতমাসে কেন্দ্রীয় সরকার ২০ লাখ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেছে, যা কোভিড -১৯ সংকট ও লকডাউনের মধ্যে অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষেত্রেগুলিতে চাঙ্গা করবে। এই প্যাকেজ দেশের জিডিপি-র প্রায় ১০ শতাংশ।

আরও পড়ুন: আমেরিকাকে বিভক্ত করার চেষ্টা করছেন ট্রাম্প, বিস্ফোরক প্রাক্তন মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস

করোনার জেরে যে আর্থিক সঙ্কট তৈরি হয়েছে তা থেকে দেশবাসীকে রক্ষা করতে এবং আত্মনির্ভর করে তুলতে ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই প্যাকেজ নিয়ে দেশবাসীকে লেখা চিঠিতে দাবি করেছিলেন, করোনা মহামারির মধ্যে গোটা বিশ্বের সামনে অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনের এক উদাহরণ তৈরি করেছে মোদি সরকার। যদিও সরকারের এই দাবি মানতে নারাজ বিরোধীরা।

 

Related Articles

Back to top button
Close