fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

চিন্তন শিবির থেকে দেশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় রাজ্য-কেন্দ্রকে একযোগে কাজ করার বার্তা মোদীর

যুগশঙ্খ,  ওয়েব ডেস্ক:দুদিনের এই চিন্তন শিবির থেকে আজ ভার্চুয়ালি ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ভার্চুয়াল ভাষণ শিবিরে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যগুলির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশ প্রধানরা। আমন্ত্রণ থাকলেও এই শিবিরে যোগ দিলেন না বঙ্গের স্বরাষ্ট্রমনটরই, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন দেশের আইন শৃঙ্খলা নিয়ে সরব হয়ে রাজ্য-কেন্দ্রকের একযোগে কাজ করার বার্তা দেন। দেশের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার দায়িত্ব সকলের। এই দায়িত্ব সাংবিধানিক কর্তব্য। দেশে শান্তি ও আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব প্রত্যেক নাগরিকেরও। শান্তি ও শৃঙ্খলা থাকলে তবেই দেশ উন্নয়নের পথে এগোবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অপরাধের জাল এখন আন্তঃরাজ্য, এমনকী আন্তর্জাতিক স্তরে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রযুক্তির সাহায্যে অপরাধীরা দূর থেকে এমনকী সীমান্তের ওপার থেকেও অপরাধ ছড়ানোর ক্ষমতা রাখে। এই অবস্থায় সকলের মিলিতভাবে অপরাধ দমনে এগিয়ে আসা উচিত। ৫ জি পরিষেবা নিয়ে বলেন, এই পরিষেবা দেশের সমস্যা মেটালেও অনেক সমস্যা আসতে পারে। তাই আমাদের সাইবার ক্রাইম রুখতে হবে।

হরিয়ানার সুরজকুণ্ডে আয়োজিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের চিন্তন শিবিরে, প্রতিটি রাজ্যকে পরস্পরের কাছ থেকে তথ্য আদানপ্রদান করতে হবে। একজনের কাজ দেখে দেখে অন্যকে অনুপ্রাণিত হওয়ার পরামর্শ দেন। চিন্তন শিবিরে বিভিন্ন রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব, ডিজিপি, সিআরপিএফের অফিসাররাও অংশ নেন।

প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে প্রকাশিত বিবৃতি অনুযায়ী, দেশের সুরক্ষা নিয়ে আলোচনা করাই ছিল দুদিনের চিন্তন শিবিরের মূল উদ্দেশ্য। পুলিশ বাহিনীর আধুনিকীকরণ, সাইবার অপরাধ নিয়ন্ত্রণ, বিচারের ক্ষেত্রে আরও বেশি প্রযুক্তির ব্যবহার, সীমান্ত সুরক্ষা, উপকূলীয় নিরাপত্তা, নারী সুরক্ষা, মাদক পাচারের মতো বিষয়গুলিই ছিল মূল আলোচ্য।

Related Articles

Back to top button
Close