fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

মোদির হুঁশিয়ারি, বিদেশ মন্ত্রী এস জয় শংকরকে ফোন চিনের বিদেশ মন্ত্রীর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ভারত-চিন সীমান্তে প্রবল উত্তেজনার মধ্যেই বুধবার চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং শি’র সঙ্গে টেলিফোনে কথা বললেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। এদিন এই দুই ব্যক্তির মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ কথা হয়। সীমান্তে সংঘর্ষের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এই পদক্ষেপ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বটে। এই ঘটনার দু’‌দিন আগে লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে গালওয়ানের সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা মারা গিয়েছেন। চীনেও প্রাণ হারিয়েছেন অনেক সেনা। সেসংখ্যাটি অবশ্য এখনও খোলসা করেনি চিন সরকার।

দু’পক্ষ এদিন সীমান্তে শান্তি ফেরানোর কথা বলেছেন। জয়শঙ্কর শি’কে বলেন, ‘ভারত শান্তি রক্ষার্থে সচেষ্ট। কিন্তু উসকানিমূলক আচরণ চিনের দিক থেকে এলে তার জবাব দেওয়া হবে।’ শি উত্তর বলেন, ‘দুই দেশের শীর্ষ নেতৃত্বই ঠিক করবে কোন পথে এই সমস্যা এগোবে। দু’দেশই চায় শান্তিপূর্ণভাবে এই সমস্যার সমাধান হোক।’

চিনের বিদেশ মন্ত্রী জোর দিয়ে বলেন যে চিন এবং ভারত উভয়ই উদীয়মান শক্তি। এই কারণে, পারস্পরিক সম্মান এবং পারস্পরিক সমর্থন উভয় পক্ষের সঠিক পথ, এতে দুই দেশের দীর্ঘমেয়াদী স্বার্থ জড়িত রয়েছে। পার্থক্য নিরসনে বিদ্যমান ব্যবস্থার মাধ্যমে যোগাযোগ ও সমন্বয় জোরদার করা উচিত। সূত্রের খবর, চিনের বিদেশ মন্ত্রী ওয়াং ইয়ি সংঘাতের জন্য দায়ীদের কঠোর শাস্তি দেওয়ার, বাহিনীকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য ভারতের কাছে আবেদন জানিয়েছে।

আরও পড়ুন: রাজনীতি না করে সেনার সঙ্গে থাকুন, দেশের সঙ্গে থাকুন,কংগ্রেস, সিপিএম, তৃণমূলকে কড়া বার্তা দিলীপের

রাষ্ট্রসংঘও এদিন বিবৃতি প্রকাশ করে জানিয়েছে, সীমান্তে এই উত্তেজনা প্রশমনের জন্য দুই দেশের এই উদ্যোগা প্রশংসনীয়। আশা করা যায়, সমস্যার অতি দ্রুতই সমাধান হবে।’ এদিন টেলিফোনে কথা বলার সময় দুই দেশই আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে এই সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার উপরে জোর দিয়েছেন বলেই জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close