fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হিন্দু পুরোহিতদের মাসিক ভাতা দেওয়ার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানাই:পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকী

মোকতার হোসেন মন্ডল: আগেই দাবি করেছিলাম, তাই হিন্দু পুরোহিতদের মাসিক ভাতা দেওয়ার জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানাই। ঠিক এই ভাষাতেই পুরোহিত ভাতা প্রসঙ্গে নিজের প্রতিক্রিয়া জানালেন ফুরফুরা দরবার শরীফের পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকী। তিনি এক বার্তায় ফুরফুরা থেকে বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের হিন্দু পুরোহিতদের মাসিক ভাতা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। সেই সঙ্গে যেসব পুরোহিত গরিব তাদের ঘর করে দেওয়ার কথা বলেছেন। এটা খুব সুন্দর সিদ্ধান্ত। আমি পুরোহিত ভাতা দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানাই।

পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকী বলেন, তৃণমূল সরকার ক্ষমতায় আসার পর মুসলিমদের ওয়াকফ বোর্ডের টাকার থেকে ইমাম ও মুয়াজ্জিন ভাতা দেওয়ার ঘোষণা হয়। তখন এই ভাতা নিয়ে বহু বিতর্ক হয়েছিল। আমি সেদিন বলেছিলাম, মুসলিমদের নিজস্ব দানের ওয়াকফ বোর্ডের টাকা থেকে ইমাম ভাতা দেওয়া হচ্ছে। হিন্দু পুরোহিতদের জন্য তাদের দেবোত্তর সম্পত্তি থেকে ভাতা দেওয়া হোক।
যাইহোক, অবশেষে পুরোহিত ভাতা দেবার ঘোষণা দেওয়ার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ জানাই।

[আরও পড়ুন- আইনজীবী রজত দে হত্যাকাণ্ডে যাবজ্জীবন স্ত্রী অনিন্দিতার]

পীরজাদা জানান,মুসলিমদের যে ওয়াকফ সম্পদ আছে স্বাধীনতার পর থেকে তার অনেকটা বেদখল। বহুদিন মুসলিমরা এই নিয়ে আন্দোলন করেছেন। সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ক্ষমতায় এলে মুসলিমদের ওয়াকফ নিয়ে ভাববেন।

এদিকে ব্রাহ্মণ ভাতা নিয়ে রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছে বেঙ্গল ইমামস অ্যাসোসিয়েশন। ওই সংগঠনের প্রধান মহম্মদ ইয়াহিয়া গণমাধ্যমকে বলেন,‘মুখ্যমন্ত্রী যে প্রকল্প ঘোষণা করেছেন তা নিছকই জনকল্যাণের কথা মাথায় রেখে। কারণ, সব হিন্দু তো আর পুরোহিত নয়। আর যদি তর্কের খাতিরে ধরেও নেওয়া হয় তিনি হিন্দু ভোট নিশ্চিত করতে এই পদক্ষেপ করেছেন, তাহলে প্রশ্ন ওঠে হিন্দু ভোট কংগ্রেস আর বিজেপির পৈত্রিক সম্পত্তি নাকি? তণমূলের হিন্দু ভোট পাওয়ার অধিকার নেই?’

 

Related Articles

Back to top button
Close