fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আসানসোলের জামুড়িয়ায় চাঞ্চল্য, মানসিক ভারসাম্যহীন ছেলের হাতে খুন মা

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: মানসিক ভারসাম্যহীন  ছেলের হাতে খুন হলো মা। সোমবারের এই ঘটনায় আসানসোলের জামুরিয়া থানার কেন্দা ফাঁড়ির পরাশিয়া মাঝি পাড়ায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ছেলের এক কোদালের কোপে খুন হওয়া মহিলার নাম সোনামণি টুডু (৪৬)। ছেলে বলাই টুডুকে পুলিশ আটক করেছে। মঙ্গলবার সকালে আসানসোল জেলা হাসপাতালে মহিলার মৃতদেহর ময়নাতদন্ত হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সোনামনি টুডু বছর ২৬ এর ছেলে বলাই টুডুকে নিয়ে বাপের বাড়িতে থাকতেন। সোনামনি সোমবার বৌদি সারথি মাড্ডির সঙ্গে বাড়ির উঠোনে বসে গুঁড়ো কয়লা মেখে গুল দিচ্ছিলেন। আচমকাই পেছন থেকে ছেলে বলাই টুডু একটি কোদাল দিয়ে মায়ের মাথা ও ঘাড়ের মাঝখানে কোপ মারে । সঙ্গে সঙ্গে রক্তাক্ত অবস্থায় সেখানেই লুটিয়ে পড়ে  সোনামনি। ছুটে আসেন বলাইয়ের মামা কিষান হেমব্রম । আশপাশের লোকেরাও দৌড়ে আসেন। ডাকা হয় স্থানীয় এক চিকিৎসককে। তিনি পরীক্ষা করে বলেন সোনামনির মৃত্যু হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে কেন্দা ফাঁড়ির পুলিশ আসে । পুলিশ সোনামনির দেহ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে আসে। আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে যাওয়া হয় বলাইকে।

কিষান হেমব্রম বলেন,  কয়েক মাস আগেও দিনমজুরের কাজ করতো বলাই। মাস দুয়েক হলো কোনও কারনে তার মাথায় গোলমাল ধরা পড়ে। আমরা চিকিৎসক দেখিয়েছি। ঝাড়ফুঁকও করা হয়েছে। হঠাৎ কেন এমন হলো বুঝতে পারছি না। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বলাইকে আটক করা হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে ।

Related Articles

Back to top button
Close