fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপি নেতা বীরেন রায়ের মৃত্যুতে শোক মিছিল

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিনহাটা: বিজেপি নেতা বীরেন রায়ের মৃত্যুতে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও স্মরণ সভা ছাড়াই দিনহাটায় শোক মিছিল অনুষ্ঠিত হল। রবিবার দিনহাটা দুই ব্লকের বুড়িরহাটে  দলের পক্ষ থেকে  শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও স্মরণ সভার আয়োজন করা হলে দলের কর্মী সমর্থকদের পাশাপাশি বহু সাধারণ মানুষ স্মরণ সভা ও শোক মিছিলে অংশ নেন।

এদিন এই শ্রদ্ধাজ্ঞাপন অনুষ্ঠানে তাঁর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করেন দলের  কোচবিহার জেলা সহ-সভাপতি প্রাক্তন বিধায়ক অশোক মন্ডল, জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার, দলের শিলিগুড়ির অবজারভার দীপ্তিমান সেনগুপ্ত, সংখ্যালঘু সেলের আনোয়ার হোসেন থেকে শুরু করে অনেকেই। এদিন শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের পর এক মিনিট নীরবতা পালন ছাড়াও শোক মিছিল শুরুর আগে সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে বিজেপি নেতৃত্ব বীরেন রায় রাজনৈতিক এবং সামাজিক নানা দিক তুলে ধরেন।

দিনহাটা ২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ছিলেন বীরেন রায়। এছাড়াও বিভিন্ন সময় গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য থেকে শুরু করে প্রধান পদে আসীন ছিলেন। উল্লেখ্য, গত ৩ আগস্ট বার্ধক্যজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়। দলের নেতার প্রয়াণে এদিন বিজেপির পক্ষ থেকে বুড়িরহাট বাজারে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করা হয়। এই শোক মিছিলকে ঘিরে সামাজিক দূরত্ব লঙ্ঘিত হয় বলেও অভিযোগ করে তৃণমূল।

জেলার তৃণমূল নেতৃত্ব বলেন, যেকোনো মৃত্যুই দুঃখজনক। তবে বর্তমান এই কঠিন সময়ে যখন বারেবারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কথা জোর দেওয়া হচ্ছে তখন বুড়িরহাটে বিজেপির এই কর্মসূচি সামাজিক দূরত্ব ছিল না বললেই চলে। ভিড়ে ঠাসাঠাসি করে অনেকেই তার শহীদ বেদীতে মাল্যদান করেন। বিজেপি নেতৃত্ব অবশ্য বলেন, নিয়ম মেনে সকলেই মুখে মাস্ক পড়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন ও শোক মিছিলে অংশ নেয়।

এদিন এই শোক মিছিল বুড়িরহাট এলাকার বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে। বিজেপির কোচবিহার জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার জানান, দীর্ঘদিন বাম রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন বীরেন রায়। বিভিন্ন সময় তিনি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান থেকে শুরু করে পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি বিজেপিতে যোগদান করেন। দলের ২৫ নম্বর জেলাপরিষদের মন্ডল সভাপতি ছাড়াও জেলা কমিটির সদস্য ছিলেন তিনি। দলের প্রয়াত এই নেতাকে শ্রদ্ধা জানাতে এদিন শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও স্মরণ সভা ছাড়াই শোক মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। দলীয় কর্মী সমর্থকদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ তাকে ভালোবাসে বলেই অনেকে ছুটে এসেছেন খবর পেয়ে।

Related Articles

Back to top button
Close