fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

ফের রাজনৈতিক জগতে শোকের ছায়া, প্রয়াত অমর সিং

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ফের প্রয়াত হলেন এক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। জানা গিয়েছে, রাজ্যসভার সদস্য এবং সমাজবাদী পার্টির প্রাক্তন নেতা অমর সিং-এর জীবনাবসান হল। শনিবার দুপুরে সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর।

দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ ছিলেন অমর সিং। ২০১৩ সাল থেকে কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। গত কয়েক মাস তাঁকে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছিল। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে ICU-তে রাখা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে।

 

বলা হয়, একসময় দিল্লির জাতীয় রাজনীতির অন্যতম ভরকেন্দ্র হয়ে উঠেছিলেন অমর সিং। সমাজবাদী পার্টির নেতা হওয়া সত্বেও রাজনৈতিক মহলের সব শিবিরে তাঁর ছিল অবাধ বিচরণ। ২০০৮ সালে ইন্দো-মার্কিন পরমাণু চুক্তি ইস্যুতে প্রথম ইউপিএ সরকারের উপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে নিয়েছিল বামেরা। ফলে সংখ্যালঘু হয়ে পড়ে মনমোহন সিং সরকার। এই সংকটকালে সমাজবাদী পার্টি সমর্থনের হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় সে বার সংসদে আস্থা ভোটে উতরে যায় কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ। তৎকালীন সপা সুপ্রিমো মুলায়ম সিং যাদবকে এই বিষয়ে রাজি করানোর ক্ষেত্রে মূল ভূমিকা নিয়েছিলেন অমর সিং। পরবর্তী কয়েক বছর জাতীয় রাজনীতিতে তাঁর প্রভাব বাড়তে থাকে।

তবে নেতৃত্বের সঙ্গে মতপার্থক্যের জেরে ২০১০ সালের জানুয়ারি মাসে সমাজবাদী পার্টির সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দেন মুলায়মের একদা ঘনিষ্ঠ অমর সিং। পরে তাঁকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। এর পরে নিজের দল খুলেছিলেন একদা সপার একদা দোর্দণ্ডপ্রতাপ এই নেতা। তবে রাজনীতির অঙ্গনে তাঁর প্রভাব প্রতিপত্তি ক্রমশ হ্রাস পাচ্ছিল। সম্প্রতি ফের রাজ্যসভার সদস্য হওয়ার পরে মনে করা হচ্ছিল, ফের স্বমহিমায় ফিরে আসবেন সদাহাস্য এই নেতা। তবে সঙ্গ দিচ্ছিল না শরীর। গত ২২ মার্চ হাসপাতালের বিছানায় শুয়েই এক ভিডিয়ো বার্তা পোস্ট করেছিলেন অমর সিং। ওই ভিডিয়ো বার্তায় করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সমর্থন করার জন্য তাঁর সমর্থকদের কাছে আবেদন করেছিলেন তিনি। এদিন তাঁর আকস্মিক প্রয়াণে রাজনৈতিক জগতে গভীর শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

 

Related Articles

Back to top button
Close