fbpx
দেশহেডলাইন

প্রধানমন্ত্রীর যেকোনও কাজই প্রশংসার যোগ্য’, বিজেপিতে যোগ দিয়েই বললেন মুলায়ম পুত্রবধূ

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃউত্তরপ্রদেশের নির্বাচনের আগেই পাল্লা ভারী হল গেরুয়া শিবিরে। বিজেপিতে যোগদান করলেন সপা প্রধান, উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মুলায়ম সিং যাদব। ভোটের আগে যাদব পরিবারে বড়সড় ভাঙন। সূত্রের খবর, অখিলেশ যাদবের নেতৃত্বের ওপরে কোনও দিনই ভরসা রাখেননি অপর্ণা। তার প্রকাশ দলের মধ্যেই থেকে নানা ভাবে বুঝিয়ে ছিলেন অপর্ণা। মাঝেমধ্যেই বেসুরো হচ্ছিলেন তিনি। একদিকে যখন ভোটের উত্তাপ চড়ছে ঠিক তখনই যাদব পরিবারে এই ভাঙন উত্তরপ্রদেশে বিজেপিতে বেশ বড়সড় অক্সিজেন যোগাবে বলে মনে করা হচ্ছে। বুধবার দিল্লিতে বিজেপির সদর দফতরে উত্তর প্রদেশের উপ মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য ও বিজেপির রাজ্য সভাপতি স্বতন্ত্র দেব সিং-এর উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন অপর্ণা।

বিজেপিতে যোগ দিয়ে অপর্ণা যাদব বলেন, ‘আমি বিজেপির কাছে কৃতজ্ঞ। দেশ আমার কাছে সবসময় আগে। আর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর যে কোনও কাজই প্রশংসার যোগ্য। স্বচ্ছ ভারতের মতো বিজেপির বিভিন্ন উদ্যোগ বরাবরই তাঁর পছন্দের।

অপর্ণা যাদব মুলায়ম সিং যাদবের ছোট ছেলে প্রতীক যাদবের স্ত্রী। এর আগেও দলের মধ্যে থেকে বিদ্রোহ করতে দেখা গিয়েছিল অপর্ণাকে। অনেক বুঝিয়ে সুঝিয়ে অপর্ণাকে দলে ধরে রাখেন মুলায়ম সিং। বার বারই সপার বিরুদ্ধে গিয়ে বিজেপির পক্ষে কথা বলতে শোনা গেছে অপর্ণাকে। এনআরসি, রাম মন্দিরের মতো ইস্যুতে বিজেপির অবস্থানকে সমর্থন করতে দেখা গিয়েছিল অপর্ণাকে। প্রকাশ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের প্রশংসা করতে শোনা গিয়েছে তাঁকে। রাম মন্দিরের জন্য নিজের পকেট থেকে ১১ লক্ষ টাকা অনুদানও দেনও তিনি। এমনকী ভাইয়ের স্ত্রী’র বেসুরো প্রসঙ্গে বিপাকে দলের বর্তমান জাতীয় সভাপতি তথা উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবও। ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগেও দলের অন্দরে বিদ্রোহ করতে দেখা যায় অপর্ণাকে। সেবার মুলায়মই পুত্রবধূকে বুঝিয়ে দলে থাকতে বলেন। ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনে সমাজবাদী পার্টির টিকিটে ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতাও করেছিলেন তিনি। কিন্তু জিততে পারেননি। বিজেপি নেত্রী রীতা বহুগুণা যোশীর কাছে পরাস্ত হন অপর্ণা।

Related Articles

Back to top button
Close