fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

মদ্যপানের পরই গলা কেটে খুন তিলজলার সরকারি আবাসনে! গ্রেফতার ২

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মায়ের মৃত্যুর পর একা থাকা সত্বেও কিভাবে তিলজলা কুষ্টিয়া রোডে সরকারি আবাসনে ওই ব্যক্তি খুন হয়েছিল, তা নিয়ে প্রাথমিকভাবে ধন্দে ছিল পুলিশ। কিন্তু ২৪ ঘন্টার মধ্যেই জয়ন্ত মুখোপাধ্যায় নামে ব্যক্তির খুনের ঘটনায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার মগরা হাট থেকে জনকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃতদের নাম শুভ সর্দার ও রাহুল হালদার। ঘটনায় একজনকে আটকও করা হয়েছে। বাড়িতে একসাথে বসে মদ্যপানের পরওই ব্যক্তিকে গলা কেটে খুন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান পুলিশের।
প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, ওই বাড়িতে  একসময় পরিচারিকার কাজ করতেন শুভ হালদারের মা। জয়ন্ত বাবুর বাবা অনেক বছর আগে মারা গিয়েছেন এবং তার মা মারা গিয়েছেন মাস পাঁচেক আগে। অবিবাহিত জয়ন্ত বাবু ওই বাড়িতে একাই থাকতেন এবং পরিচারিকার সঙ্গে তার ছেলে ওই বাড়িতে যাতায়াত করতেন। ফলে ওই বাড়ির সমস্ত কিছুই জানা ছিল শুভ হালদারের। তার বন্ধু রাহুলকে নিয়ে সে এই খুনের পরিকল্পনা করেছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান।
অভিযুক্তরা জেরায় জানিয়েছে,  ৬ ডিসেম্বর রাত ৯টা ২০ মিনিট নাগাদ আততায়ীরা জয়ন্তর বাড়িতে আসে। রাত ১১টা ২০মিনিট নাগাদ ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। তার মধ্যেই মদ্যপানের সময় কোনও কারণে তাঁদের মধ্যে বচসা শুরু হয়। শেষে মাথায় ভারি কিছু দিয়ে আঘাত করে বঁটি দিয়ে গলা কেটে খুন করা হয় জয়ন্তকে। পুলিশ জানিয়েছে, ডাকাতির উদ্দেশ্যে পরিকল্পনা করা হয়েছিল। জয়ন্তর সঙ্গে মদ্যপান করতে বসে অভিযুক্তরা। তারপরই জয়ন্তকে খুন করে গয়না, টাকা লুঠ করে পালায়। গতকাল থেকেই জয়ন্তর মোবাইল ফোনটিও পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে গ্রেফতার হওয়া যুবকদের থেকে উদ্ধার হয় মৃতের মোবাইল ফোন।

Related Articles

Back to top button
Close