fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বস্তি অঞ্চলে তৈরি হবে “আমার বাড়ি”

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তোপসিয়াতে উড়ে যাওয়া বস্তিতে তৈরি হবে  ‘আমার বাড়ি’। তপসিয়ায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে  সর্বস্বান্ত হয়েছেন বহু মানুষ।  আগুনে পুড়ে গেছে প্রায় ৫০ থেকে ৬০ টি  ঝুপড়ি।  একদিকে করোনা পরিস্থিতি, অন্যদিকে বাড়ি পুড়ে যাওয়ার ঘটনা দিশেহারা বহু মানুষ। এবার এই মানুষজনের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন কলকাতা পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য ফিরহাদ হাকিম।
বুধবার তিনি বলেন, সংশ্লিষ্ট জায়গাটি সেচ দফতরের আওতায় পড়ে। কিন্তু যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বা যাদের বাড়ি সম্পূর্ণভাবে পুড়ে গেছে তাদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে এই সিদ্ধান্ত বলে জানান তিনি। একইসঙ্গে ফিরহাদ হাকিম বলেন, শহরের যে সমস্ত জায়গায় বস্তিবাড়ির রয়েছে সেই সমস্ত জায়গায় বাংলার বাড়ি করার বিষয়ে উদ্যোগ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বিভিন্ন দফতরের জমির ওপর রয়েছে বস্তিগুলি। সেক্ষেত্রে যদি সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলি রাজি হয় সেখানে বাংলার বাড়ি তৈরি করে দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই প্রকল্পের বাস্তবায়ন হলে শহরে কোথাও বস্তি বাড়ি থাকবে না বলে জানান তিনি।
প্রসঙ্গত,  মঙ্গলবার হঠাৎই তপসিয়ায় এক ঝুপড়িতে লেগে যায় বিধ্বংসী আগুন। ঘিঞ্জি এলাকায় হওয়ায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে আগুন। আগুন নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে দমকলের ১২ টি ইঞ্জিন। আগুনে পুড়ে  ছাই ৫০ থেকে ৬০ টি ঝুপড়ি। আগুন লেগেছে বুঝতে পেরেই খবর দেওয়া হল দমকলে।মুহুর্তের মধ্যে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের পাঁচটি ইঞ্জিন। এরপর ঘটনাস্থলে আসে দমকলে র আরও ৭ টি ইঞ্জিন। মোট ১২ টি ইঞ্জিনের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

Related Articles

Back to top button
Close