fbpx
কলকাতাহেডলাইন

নন্দীগ্রাম আন্দোলন মমতারই আন্দোলন: ফিরহাদ 

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: নন্দীগ্রাম আন্দোলন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আন্দোলন। তোপ দাগলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। মঙ্গলবার নন্দীগ্রাম দিবস উপলক্ষে হাজরা কাটায় এক সমাবেশে যোগ দিয়ে এ কথা বলেন ফিরহাদ। নন্দিগ্রমে অন্য একটি সভাতে শুভেন্দু আধিকারি বলেন, ‘আমি বা অন্য কেউ নয় নন্দীগ্রাম মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত আন্দোলন।’ এদিন তারই পাল্টা বলেন ফিরহাদ। তিনি বলেন, ‘নন্দীগ্রাম ও সিঙুর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াই। যে বা যারা ভুলে যাবেন তাদের মন্ত্রী থাকার আধিকার নেই।’ নাম না করে এদিন শুভেন্দু আধিকারি কে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন পুরমন্ত্রী।
এদিন নন্দীগ্রাম দিবস উপলক্ষে জোড়া সভার আয়োজন করা হয়েছিল নন্দীগ্রামে। একটি জনসভায় নেতৃত্ব দেন ফিরহাদ, অপরটিতে স্থানীয় নেতা শুভেন্দু অধিকরি। এতদিন শুভেন্দুকে নিয়ে দলের অন্দরে দূরত্বেরর কথা চাপা থাকলেও এদিনের জোড়া সভায় তা একেবারে প্রকাশ্যে এসে গেছে। এদিন ফিরহাদ বলেন, ‘আমিত্ব নয় আমরা। আমরা সকলকে মিলে একসঙ্গে বাঁচতে পারি বাংলাকে। একা থাকলে ভেঙে যাবে। আমরা সকলে মিলে হচ্ছে শক্তি। এমন কিছু করবেন না যাতে বিজেপি সুযোগ পায়। আমি আমি বিজেপিকে সুযোগ করে দিচ্ছে। আমি আমি করে মমতাকে নয় বিজেপির হাত শক্ত করা হচ্ছে। এখনো পর্যন্ত আমাদের কান্ডারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যারা মনে করছেন মমতার হাত ছেড়ে দেবেন, তারা আসলে বিজেপির হাত শক্ত করছেন। ‘আমি’ ও ‘আমার’ আদপে মানুষের ক্ষতি করচ্ছে। বাংলাকে উত্তর প্রদেশ বানাবার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। যোগী ও দিলীপ এর মধ্যে কোন পার্থক্য নেই। মানুষের উপর ধর্মের নামে অত্যাচার নেমে আসবে। সেটা কেউ সমর্থন করবে না। আমার মনে রবীন্দ্রনাথ ও চেতনায় নজরুল। হাওয়া দিয়ে বিজেপির হাত শক্ত করছে। বাংলার মানুষ তা হতে দেবে না। মমতা যে ক্ষমতা আছে দিল্লির কারো নেই। সেটা বিশ্বাস করতে হবে। তাই তৃণমূলের অধিকার আছে নন্দীগ্রামে। সেজন্য এমন কিছু করবেন না যা বিজেপিকে সুযোগ করে দেয়। সবাই একসঙ্গে আন্দোলন করতে হবে। বিজেপিকে সমর্থন করা মানে সরাসরি কৃষক বিরোধী নীতিকে সমর্থন করা।’

Related Articles

Back to top button
Close