fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

নওয়াজ শরিফকে ‘ঘোষিত অপরাধী’ তকমা আদালতের, উত্তাল পাক রাজনীতি

ইসলামাবাদ:  লন্ডনে ‘পলাতক’ প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে ‘ঘোষিত অপরাধী’র তকমা দিয়েছে ইসলামাবাদ হাই কোর্ট। দু’টি দুর্নীতি মমলায় বারবার সমন পাঠানো হলেও আদালতে হাজির না হওয়ায় বুধবার নওয়াজ শরিফকে ‘ঘোষিত অপরাধী’র তকমা দিয়েছেন বিচারপতি আমের ফারুক ও বিচারপতি মহসিন আক্তার কয়ানির বেঞ্চ। এর ফলে পাকিস্তানে ফিরলেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিরোধী দলনেতারা। যা ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠেছে পাকিস্তানের রাজনীতি।

সূত্রের খবর, ২০১৯ সালের নভেম্বরে লাহোর হাইকোর্টে জামিনের আবেদন জানিয়ে শরিফ বলেছিলেন, তিনি গুরুতর অসুস্থ। চিকিৎসার জন্য তিনি লন্ডনে যেতে চান। সেই আবেদন মঞ্জুর করে আদালত শরিফকে চার সপ্তাহের জন্য বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেন আদালত। কিন্তু, চার সপ্তাহ কেটে গেলেও তিনি দেশে ফেরেননি। এমনকি, জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য জরুরি মেডিক্যাল রিপোর্ট আদালতে জমাও দেননি। যার জেরে চলতি বছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে ‘পলাতক’ ঘোষণা করে পাকিস্তান। এরপর নওয়াজ শরিফকে  দুর্নীতি মমলায় হাজির হওয়ার জন্য একাধিকবার সমন পাঠানো হলেও আদালতে হাজির হননি তিনি। উল্টে, আল-আজিজিয়া ও অ্যাভেনফিল্ড মামলার রায়ের বিরোধিতা করে আদালতের কাছে ন্যায় বিচারের আবেদন করেছিলেন তিনি। বুধবার ছিল শরিফের তরফে দায়ের করা আবেদনের প্রেক্ষিতেই শুনানির দিনক্ষণ। সেখানেও তিনি যথারীতি গরহাজির হন। যার ফলে ক্ষুব্ধ হয় ইসলামাবাদ হাই কোর্টের দুই সদস্যের বেঞ্চ তাঁকে ‘ঘোষিত অপরাধী’ তকমা দেয়।

তবে, আদালতের এই তকমার পিছনে ইমরান খান সরকারের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। কেননা,  ইমরান খান প্রশাসনের তরফে আদালতে জানানো হয়েছিল যে বিদেশ দপ্তরের আধিকারিকরা ছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে নওয়াজ শরিফকে আদালতের সমন নিয়ে অবগত করা হয়েছিল। লন্ডনে তিনি যেখানে রয়েছেন, সেখানে আদালতের নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। পাশাপাশি, শরিফের লাহোরের বাসভবনেও আদালতের সমন গিয়েছিল। এছাড়া, গত আগস্টেই নওয়াজ শরিফকে ‘পলাতক’ ঘোষণার পাশাপাশি তাঁকে দেশে ফেরানোর জন্য ব্রিটেনের কাছে আবেদনও করা হয়েছে। যেখানে নওয়াজ শরিফ দেশের রাজনীতিতে সেনার জড়িত থাকার অভিযোগ করেছেন। ফলে, আদালতের এদিনের তকমাকে ঘিরে আবারও উত্তাল হয়েছে পাকিস্তান।

Related Articles

Back to top button
Close