fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

ক্ষমতার অপব্যবহার নেপালের, ‘সফট টার্গেট’ ভারতীয় মিডিয়া, প্রচারে জারি নিষেধাজ্ঞা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্কঃ ক্ষমতার অপব্যবহার  হয়ত একেই বলে!  ক্ষমতার আস্ফালন ঘটানোর জন্য সংবাদমাধ্যম সর্বদাই সফট টার্গেট। এবারও ভারত-নেপাল চলতি মনকষাকষিতে নেপালি নিষেধাজ্ঞার শিকার হতে হল সেদেশে প্রচারিত ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলিকে।প্রধানমন্ত্রী ওলি বিরোধী প্রচার চালানোর অভিযোগে দূরদর্শন বাদে সমস্ত ভারতীয় সংবাদ চ্যানেলের সম্প্রচার নিষিদ্ধ করল নেপাল সরকার।

বৃহস্পতিবার নেপাল সরকারের মুখপাত্র যুবরাজ খাতিওয়াদা জানিয়েছেন, ‘নয়া মানচিত্র প্রকাশের পর থেকেই ভারতীয় বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমগুলি লাগাতার নেপাল বিরোধী প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। নেপাল সরকারের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে বিদ্রোহের জন্য উসকানি দিচ্ছে। দেশের জাতীয় নিরাপত্তার পক্ষে বিপজ্জনক হয়ে উঠছিল। তাই ভারত সরকারের নিজস্ব চ্যানেল দূরদর্শন বাদে বাকি সব ভারতীয় টিভি চ্যানেলের সম্প্রচার নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’ নেপাল সরকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশের সাধারণ মানুষ।

চিনের মতোই গত কয়েকদিন ধরেই সীমান্ত নিয়ে ভারতের সঙ্গে নেপালের বিরোধ সংঘাতে  পৌঁছেছে। আর সেই বিরোধের জেরে নেপালের মুখ্যমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলির গদি টলমল। নেপালের শাসকদল নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির মধ্যে কার্যত আড়াআড়ি বিভাজন ঘটেছে। প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী পুষ্পকুমার দহাল ওরফে প্রচণ্ড, মাধন নেপাল, ঝালানাথ খানালেরমতো নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির বর্ষীয়ান নেতারা। যদিও প্রধানমন্ত্রী পদে ওলির ভাগ্য নির্ধারণে দলের স্ট্যান্ডিং কমিটির বৈঠক ডাকা হলেও তা তিন-তিনবার পিছিয়ে গিয়েছে।

যদিও এখনও পর্যন্ত এই ঘটনার প্রতিবাদে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি ভারতের পক্ষ থেকে।

Related Articles

Back to top button
Close