fbpx
দেশহেডলাইন

২৩ জানুয়ারি ১২৫ তম জন্মদিনে ইন্ডিয়া গেটে বসবে নেতাজির মূর্তি, ট্যুইট প্রধানমন্ত্রীর

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ ট্যাবলো বিতর্কে কি নতুন করে ঘৃতাহুতি হল! এবার ২৩ জানুয়ারি ১২৫ তম জন্মদিনে ইন্ডিয়া গেটে বসছে নেতাজির মূর্তি। এমনটাই ট্যুইট করে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

আগামী ২৩ জানুয়ারি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মদিন শ্রদ্ধা জানিয়ে ইন্ডিয়া গেটে বসছে নেতাজির স্ট্যাচু। আপাতত গ্রানাইটের তৈরি হলগ্রাম স্ট্যাচু বসানো হবে। যতদিন না নেতাজির মূর্তি গড়ার কাজ শেষ ততদিন ইন্ডিয়া গেটে থাকবে নেতাজির ওই গ্রানাইটের তৈরি ওই হলোগ্রাম স্ট্যাচু । ২৩ জানুয়ারি  মূর্তির হবে উদ্বোধন।

ট্যুইটে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, ভারত কতটা ঋণী তার প্রমাণ করবে নেতাজির এই স্ট্যাচু। এদিকে এই খবর সামনে আসতেই সুর চড়িয়েছেন বিরোধী দলের রাজনৈতিক নেতারা।

উল্লেখ্য, প্রতি বছরই সাধারণতন্ত্র দিবসে কেন্দ্রের ট্যাবলোর পাশাপাশি বিভিন্ন রাজ্যের পাঠানো ট্যাবলোও অংশগ্রহণ করে। গত কয়েক বছর ধরে বাংলার পাঠানো ট্যাবলো বাতিল করে দিচ্ছে কেন্দ্র। এ বছর প্রজাতন্ত্র দিবস এবং নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মবার্ষিকী এক সঙ্গে পালন করার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। সেই কথা মাথায় রেখে এবছর বাংলার ট্যাবলোর বিষয় ছিল নেতাজি। নেতাজি ও তাঁর ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল আর্মি  এবং বাংলার মনীষীদের অবদানও ছিল ট্যাবলোর থিমের অন্তর্ভুক্ত। কিন্তু সেই ট্যাবলোও বাতিল করে দেয় কেন্দ্র।

আর এই নিয়েই মুখ্যমন্ত্রী রীতিমত ক্ষোভ জানিয়ে চিঠি লেখেন প্রধানমন্ত্রীকে। তিনি লেখেন, দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে অগ্রণী ভুমিকা নিয়েছিল বাংলা। তাই কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে বাংলার মানুষ ব্যথিত হয়েছেন। এতে স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অপমান করা হয়েছে। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে তিনি হতবাক এবং ব্যথিত বলেও জানান। কোনও কারণ বা ব্যাখা ছাড়াই এভাবে বাংলার ট্যাবলো বাদ পড়ায় তিনি বিস্মিত বলে চিঠিতে উল্লেখ করেন। বিরসা মুন্ডা অরবিন্দ ঘোষ, ঋষি বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়, রমেশচন্দ্র দত্ত প্রমুখের নাম উল্লেখ তিনি লেখেন, বাংলার ট্যাবলো বাদ দেওয়ার অর্থ  ইতিহাসকে অস্বীকার করা। যা বাঙালিকে অপমান করার সামিল বলেও তাঁর মত। এবার ইন্ডিয়া গেটে নেতাজির মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্ত রাজ্য-রাজনীতিকে কোথায় নিয়ে যায়, সেটাই এখন দেখার।

Related Articles

Back to top button
Close