fbpx
অফবিটআন্তর্জাতিকহেডলাইন

‘Live’-এ খুলে গেল দাঁত, তবু শেষ করলেন বুলেটিন, দক্ষ সঞ্চালনায় কুড়োলেন কুর্নিশ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সংবাদমাধ্যম বড়ই কঠিন পেশা।  পেশার তাগিদে প্রতিকূল পরিস্থিতির সঙ্গে যুঝতে হয় প্রতিনিয়তই। নিউজ চ্যানেল গুলিতে একটি কথা প্রচলিত রয়েছে,  যদি স্টুডিওয় আগুন লাগে কিংবা বাইরে ভূমিকম্প হয় অথবা চোখের সামনে কেউ মারা যায়, বিন্দুমাত্র প্রতিক্রিয়া়র পরিবর্তন না ঘটিয়ে অস্থির না হয়ে সম্পূর্ণ বুলেটিন শেষ করতে হবে তা সে  লাইভ টেলিকাস্ট কিংবা বুলেটিন প্রচার। এটাই হবে তার পেশাদারিত্ব ও কর্ম দক্ষতার পরিচয়। সম্প্রতি এমনই ঘটনা ঘটলো ইউক্রেনের একটি নিউজ চ্যানেলের সঞ্চালিকা সঙ্গে।

তিনিি সঞ্চালিকা পাডালকোর সঙ্গে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার যখন তিনি টিভিতে লাইভ বুলেটিন পড়ছিলেন, তখন তিনি অনুভব করেন তাঁর সামনের পাটির একটি দাঁত নড়ছে। একটুও বিব্রত না হয়ে তিনি খবর পড়তে পড়তেই ঠোঁটের উপর হাত ঢাকা দিয়ে আস্তে করে খুলে পড়া দাঁতটি বের করে নিয়ে আসেন। তারপর স্বাভাবিকভাবে সম্পূর্ণ বুলেটিন পড়া শেষ করেন।

তাঁর এই অসাধারণ দক্ষতায় তাঁর সহকর্মীরা তো বটেই মারিচ্‌কা ঘটনাটি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করলে পর তাঁকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছে নেটিজেনরাও। ইতিমধ্যেই ৩০,০০০টি লাইক এবং কয়েক হাজার কমেন্ট পেয়েছে মারিচ্‌কার পোস্ট। তাঁর পোস্টটি ইংরেজিতে অনুবাদ করেছে আরেকটি সংবাদমাধ্যম।


মারিচ্‌কা বললেন, তাঁর ২০ বছরের অভিজ্ঞতায় এমন ঘটনা এই প্রথম। তিনি ভেবেছিলেন হয়ত দর্শকরা ঘটনাটি খবর চলাকালীন খেয়াল করেননি। কিন্তু দর্শকদের পর্যবেক্ষণ ক্ষমতা দেখে তিনি চমৎকৃত। মারিচ্‌কা জানালেন, গত ১০ বছর আগে তাঁর মেয়ে যখুন ছোট ছিল, একবার একটা অ্যালার্ম ঘড়ি তাঁকে লক্ষ্য করে ছুড়ে মেরেছিল। তখনই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল সামনের পাটির দাঁত। সেটাই আচমকা বৃহস্পতিবার খুলে পড়ে।

Related Articles

Back to top button
Close