fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

‘ড্রামাবাজি’ করছেন রাহুল গান্ধী! পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে তাঁর কথা বলা নিয়ে তীব্র আক্রমণ নির্মলা সীতারামনের

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি : ‘ড্রামাবাজি’ করছেন রাহুল গান্ধী! পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে রাস্তায় বসে কথা নিয়ে রাহুলকে তীব্র আক্রমণ করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। লকডাউনের জেরে ভিন রাজ্যে আটকে পড়া শ্রমিকরা নানা উপায়ে বাড়ি ফেরার চেষ্টা করছেন।
সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার ও বিভিন্ন রাজ্যের সরকার তাদের ফেরানোর জন্য বিশেষ ট্রেনের ঘোষণা করলেও এখনও প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ শ্রমিকের হেঁটে ফেরার ছবি সামনে আসছে। অনেকের আবার পথের ক্লান্তিতে বা দুর্ঘটনায় মারাও যাচ্ছেন। শ্রমিকদের এই দুর্দশার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকেই বারবার দায়ি করছে বিরোধীরা। তবে এবার আর মুখে না, হেঁটে বাড়ি ফিরতি কিছু শ্রমিকের সঙ্গে শনিবার পথেই দেখা করে কথা বলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।
রবিবার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন সাংবাদিক বৈঠকের শেষে পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রসঙ্গে একটি প্রশ্নে উত্তর দিতে গিয়ে রাহুলের এই আচরণকে  ‘ড্রামাবাজি’ বলে কটাক্ষ করেন। এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে আটকে পড়া শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকলের কাছে আবেদন জানিয়ে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমি হাত জোড় করে বিনয়ের সঙ্গে বলছি আমাদের সকলকে একযোগে পরিযায়ী শ্রমিকদের সংকট কাটাতে হবে।’
কয়েকটি রাজ্য ও কেন্দ্র হাত মিলিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর ব্যবস্থা করছে। সেই লক্ষ্যে বিশেষ ট্রেন চালানো হচ্ছে বলে দাবি করে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা লক্ষ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিকদের তাঁদের ঘরে ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করছি। প্রয়োজনীয় খাবার, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর ব্যবস্থা করছি। তবে এটা দুর্ভাগ্যে অনেকেই হেঁটে বাড়ি ফেরার চেষ্টা করছে।’
কিন্তু এ বিষয়ে কংগ্রেস দল বা তাদের পরিচালিত রাজ্য সরকারগুলি তা না করে কেন্দ্রীয় সরকারকে দোষারোপ করছে বলে সুর চড়িয়ে তিনি বলেন, ‘আমি জানতে চাই কংগ্রেস কেন পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কিছু করছে না? কেন কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলিতে বা তার শরিক শাসিত রাজ্যে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কিছু করা হচ্ছে না? কেন কংগ্রেসশাসিত রাজ্যগুলিতেও পরিযায়ী শ্রমিকদের এমন পরিস্থিতি? কেন সেই রাজ্যগুলি পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে কেন্দ্রের কাছে বিশেষ ট্রেন চাওয়া হচ্ছে না? যেখানে কংগ্রেস সরকার ও তাঁদের জোটসঙ্গীরা ক্ষমতায় আছে, তাঁরা কেন বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে না? পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ান আপনারাও। যেভাবেই হোক সাহায্য করা উচিত।’
এরপরই রাহুলকে কটাক্ষ করে সীতারমণ বলেন, ‘পথের ধারে বসে ওঁদের সঙ্গে গল্প করলে বা ওঁদের সঙ্গে হাঁটলেই ওঁদের কষ্ট কমবে না।তার চেয়ে ওঁদের জন্য ট্রেনের আবেদন করুন, ওঁদের সঙ্গে হাটুন, ওঁদের স্যুটকেসটা বয়ে দিয়ে সাহায্য করুন।’
এর পাশাপাশি কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীকেও আক্রমণ করেন নির্মলা সীতারামন। তিনি বলেন, ‘আমি সনিয়াজিকে আবেদন করছি, আমাদের বিষয়টা দেখতে দিন দায়িত্ব-সহকারে।’
অর্থমন্ত্রী এই মন্তব্যের পালটা জবাব দিয়েছেন কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সূরজওয়ালা। তিনি অর্থমন্ত্রীকে আক্রমণ করে বলেন, ‘পরিযায়ী শ্রমিকদের কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দেওয়া বন্ধ করুন। আপনার কী মনে করেন, শ্রমিকদের সবটাই নাটক? এখনও পর্যন্ত যে ১৩৫ জন পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে, তা লজ্জাজনক নয়? এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত পরিযায়ী শ্রমিকদের কাছে ক্ষমা চাওয়া। রাহুলজি ওদেঁর দুঃখ ভাগ করতে গিয়েছিলেন। দুঃখ ভাগ করে যদি অন্যায় হয়, তাহলে আমরা আবার সেই অন্যায় করব।’

Related Articles

Back to top button
Close