fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

স্বল্প উপসর্গযুক্ত রোগীদের টেস্টের প্রয়োজন নেই, জুন জুলাইয়ে সংক্রমণ বৃদ্ধি নিয়ে কি ইঙ্গিত দিল কেন্দ্র?

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: সামান্য কিংবা অল্প উপসর্গযুক্ত রোগীদের হাসপাতাল থেকে ছাড়া রাগে করোনা পরীক্ষার প্রয়োজন নেই। শুক্রবার এমনটাই জানালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন গোয়েল।

হাসপাতাল থেকে ফেরার পর বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইন থাকতে পারবেন রোগীরা। প্রয়োজন হলে স্বাস্থ্য বিভাগের কোয়ারেন্টাইন হোম গুলোতেও পরবর্তীকালে তারা আশ্রয় নিতে পারেন। করোনা নীতি নিয়ে কেন্দ্রের কেন এই পরিবর্তন? কী বলা রয়েছে নির্দেশিকায়?

রোগীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। দেহের তাপমাত্রা ও নাড়ির অক্সসিমেট্রি নিয়মিত পরীক্ষা করা হবে। হাসপাতালে ভর্তির তিন দিনের মধ্যে জ্বর না কমলে তাকে আরও দশ দিন রাখা হতে পারে। অথবা বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইন থাকতে হবে

কিন্তু এমন পরিস্থিতিতে রোগীর অক্সিজেনের সিচুয়েশন যদি ৯৫ শতাংশের নিচে যায় তাহলে তাকে কোভিড চিকিৎসা কেন্দ্রে ফের পাঠানো হতে পারে।

রোগীর লক্ষণ গুলো পুনরায় দেখা দিলে আবার মূল চিকিৎসা প্রক্রিয়ায় ফেরানো হবে।
কিন্তু চিকিৎসার ক্ষেত্রে যদি দেখা যায় রোগী তিন দিনের বেশি জ্বর বজায় রয়েছে তাহলে তাকে তিনদিনের পর্যাপ্ত অক্সিজেন সাজেশন দেওয়া হবে এবং তারপর তাকে ছাড়া হবে।

সূত্রের খবর মূলত জুন-জুলাই মাসে দেশে করনা আক্রান্তের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে। সে ক্ষেত্রে প্রয়োজন হতে পারে আরও হাসপাতাল ও আরো পর্যাপ্ত চিকিৎসা ব্যবস্থা। তাই আগে থেকে পরিস্থিতি ও পরিসংখ্যানের কথা মাথায় রেখে পর্যাপ্ত পরিমাণ চিকিৎসাকেন্দ্রের  প্রস্তুত রাখতেই কেন্দ্রের এমন সিদ্ধান্ত বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। ইতিমধ্যে দেশের ৫৩লক্ষ ছাড়িয়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। নতুন কেস আরো বেড়েছে রাজস্থান দিল্লির পর রয়েছে মহারাষ্ট্র উত্তরপ্রদেশের মত একাধিক রাজ্যে।

Related Articles

Back to top button
Close