fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

উত্তর ব্যারাকপুরে কোভিড রোগীদের দ্রুত চিকিৎসার জন্য চালু কোভিড অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা, শববাহী যান

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় ক্রমশ বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা এলাকার করোনা আক্রান্ত রোগীদের দ্রুত হাসপাতালে পৌঁছে দিতে এবার কোভিড অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু করল এই পুরসভা কর্তৃপক্ষ। ন্যায্যমূল্যে উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা এলাকার বাসিন্দারা কোভিড অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার করে জেলার যে কোন করোনা হাসপাতালে কিংবা সেফ হোমে পৌঁছাতে পারবে। এরফলে সুবিধা হল আক্রান্তদের। দূর থেকে অ্যাম্বুলেন্স বাড়িতে আসা পর্যন্ত রোগীদের অপেক্ষা করতে হবে না।

জেলায় বর্তমানে মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৬ হাজার পেরিয়ে গেছে। সুস্থতার সংখ্যাও উত্তর ২৪ পরগনায় বেশি। ২০ হাজারের বেশী মানুষ এখনো পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। প্রায় ৬ হাজার করোনা রোগী জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় কোভিড আক্রান্ত হয়ে এখনো পর্যন্ত মারা গেছেন ৫৯০ জন। জেলার বিভিন্ন পুরসভা এলাকায় বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা এলাকায় বর্তমানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২০০ ছুঁয়েছে।

[আরও পড়ুন- কাটোয়ায় শতাধিক পরিবারের বিজেপিতে যোগদান]

সেই কারনে উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা এলাকার বাসিন্দাদের জন্য এবার কোভিড অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা ও শববাহী গাড়ি পরিষেবা চালু করল উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা। করোনা রোগীদের দ্রুত কোন কোভিড হাসপাতালে বা সেফ হোমে পৌঁছে দিতে এই অ্যাম্বুলেন্সের পরিষেবা পাবেন স্থানীয় নাগরিকরা। এতদিন পর্যন্ত অন্য পুরসভার অ্যাম্বুলেন্স বা স্বাস্থ্য দপ্তরের গাড়ি বাড়িতে আসা পর্যন্ত করোনা রোগীদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে হত। তবে উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা নিজেদের অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করায় এই পুরসভার বাসিন্দারা দ্রুততার সঙ্গে সেই পরিষেবা পাবে।

একই সঙ্গে কোভিড মৃতদেহ বহনকারী গাড়ি ও চালু করেছে উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা। এই প্রসঙ্গে উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভার পৌর প্রশাসক মণ্ডলীর সদস্য অভিজিত মজুমদার বলেন, “স্থানীয় বাসিন্দাদের পাশে আমরা ছিলাম, আছি, থাকব। কোভিড রোগীরা যাতে দ্রুত সুচিকিৎসা পরিষেবা পায়, সেই কারনেই তাদের জন্য অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবা চালু করা হয়েছে। কোভিড মৃতদেহ যাতে দ্রুত উদ্ধার করা সম্ভব হয়, সেই কারনে কোভিড শববাহী গাড়িও পুরসভার পক্ষ থেকে চালু করা হল ।”

Related Articles

Back to top button
Close