fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

উত্তর কোরিয়ার নয়া ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রকাশে হতাশ ট্রাম্প

ওয়াশিংটন, (সংবাদ সংস্থা): সম্প্রতি এক সামরিক কুচকাওয়াজে পিয়ংইয়ংয়ের রাজপথে নতুন মডেলের একটি আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র ব্যালিস্টিক প্রদর্শন করেছে উত্তর কোরিয়া। আর এই ঘটনায় হতাশা প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের ব্যাপারে হতাশ হয়ে পড়েছেন তিনি। কেননা, উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র ধ্বংসের বিনিময়ে দেশটির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করার কথা ছিল আমেরিকার। এই বিষয়ে দুই দেশের প্রধান তিনবার সরাসরি সাক্ষাৎ করেছেন।

এদিকে, ট্রাম্প তার নির্বাচনী প্রচারাভিযানে বলেছেন, নভেম্বরে নির্বাচনে বিজয়ী হলে তিনি দ্রুততম সময়ের মধ্যে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে চুক্তি করে ফেলবেন। কিন্তু, তারপরও নিজেদের ক্ষেপণাস্ত্র ভান্ডারকে শক্তিশালি করেছে উত্তর কোরিয়া। উত্তর কোরিয়ার বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে উত্তর কোরিয়া ‘হাওয়াসং-১৫’ নামের যে ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছিল সর্বশেষ ক্ষেপণাস্ত্রটি তার চেয়ে অনেক বড়। হাওয়াসং-১৫ দিয়ে উত্তর কোরিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন শহরে আঘাত হানতে পারবে বলে সে সময় বিশেষজ্ঞরা অভিমত দিয়েছিলেন। ফলে, নয়া প্রদর্শিত ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র
অতীতে প্রদর্শিত যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে আকারে বড় হওয়ায়, চিন্তা বাড়িয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের। ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে চুক্তি করার জন্য যে ঘোষণা দিয়েছেন, তাও হুমকির মুখে পড়েছে।

উল্লেখ্য, ক্ষমতাসীন দলের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে উত্তর কোরিয়া যে নয়া আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে তা চিন্তা বাড়িয়েছে বিশ্বের অন্যান্য দেশসমূহকে। কেননা, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উন এদিন বিশাল সেনা সমাবেশে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, উত্তর কোরিয়াকে হুমকি দেওয়া হলে তার দেশ পরমাণু অস্ত্রের মাধ্যমে জবাব দেবে।
দেশরক্ষার স্বার্থে উত্তর কোরিয়া পরমাণু অস্ত্র তৈরি করেছে। তবে, বিশেষ কোনও দেশকে টার্গেট করে আগাম হামলা চালানোর কোনও ইচ্ছে উত্তর কোরিয়ার নেই।

Related Articles

Back to top button
Close