fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দুয়ারে নয়, এ রাজ্যের সরকার এখন জনগণকে খোয়াড়ে পুরে হয়রান করছে…

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, কৃষ্ণনগর: কোটি কোটি টাকার বিজ্ঞাপন দিয়ে রাজ্যের জনগণকে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ঢালাও প্রচার করা হলেও বাস্তবে কিন্তু সরকার দুয়ারে পৌঁছাচ্ছে না। জনগনকে ডেকে এলাকা ভিত্তিক ভ্রাম্যমাণ খোয়াড়  তৈরি করে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সেখানে পরিষেবা প্রদানের নামে হয়রান করছে। আজ এমনই এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো নদিয়ার হাঁসখালি থানা এলাকার বগুলা ২ নং গ্ৰাম পঞ্চায়েত এলাকায় । ৯ই ডিসেম্বর বগুলা হাইস্কুল মাঠে বগুলা ২ নং গ্ৰাম পঞ্চায়েত এলাকার গ্ৰাম সমূহের পরিষেবা দেওয়া হবে বলে মাইকিং সহ প্রতিনিধিদের মাধ্যমে প্রচার করা হয়।

সে মতো আজ সকাল থেকেই সংশ্লিষ্ট এলাকার জনসাধারণ পরিষেবা নেওয়ার জন্য বগুলা হাইস্কুল মাঠে সকাল থেকেই ভিড় করেছিল। শুরু টাও ঠিকঠাক হয় কিন্তু দুঘন্টা যেতে না যেতেই ছন্দ পতন। হঠাৎ ঘোষণা,আজ আর কোন কাগজ পত্র জমা নেওয়া হবে না অর্থাৎ আজকের মতো পরিষেবা প্রদান বন্ধ এবং সবাইকে পরবর্তী তারিখ হিসাবে ২৩ শে ডিসেম্বর পূনরায় আসতে বলা হয়।গ্ৰামের অধিকাংশ ই দিনমজুর, ক্ষেতমজুর সহ শ্রমজীবী মানুষ, এরা কাজ কামাই করে এসে যদি শেষ পর্যন্ত পরিষেবা না পেয়ে হয়রানি।

আরও পড়ুন: আগামী ২২ বছরের হেনস্থার আশঙ্কায় চাকরি ছাড়লেন বৈশাখী

পরিষেবা না পাওয়া উপস্থিত জনতা তৎক্ষণাৎ বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে।  বিষয়টি সম্পর্কে বগুলা ২ নং গ্ৰাম পঞ্চায়েতের শিল্প সঞ্চালক শ্রীবাস সিকদারকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান,এত মানুষের ভিড় হবে আমরা বুঝতে পারিনি, ফলে বাধ্য হয়ে এই সিদ্ধান্ত এবং আগামী ২৩ শে ডিসেম্বর নিশ্চিত ভাবে সবাই যাতে পরিষেবা চায়,সে ব্যাপারে পঞ্চায়েত সহ স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগাম সব ব্যবস্থা করে রাখা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close