fbpx
দেশহেডলাইন

রাম মন্দির নিয়ে কংগ্রেসের অবস্থানে অবাক হইনি: বিজয়ন

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: রাম মন্দির ইস্যুতে সুর নরম কংগ্রেসের। কংগ্রেস নেতা কমল নাথ, শশী থারুর থেকে শুরু করে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, রাহুল গান্ধীরা রাম মন্দিরের ভূমি পুজোকে সমর্থন জানিয়েছেন। কংগ্রেস নেতাদের বক্তব্যে স্পষ্ট, বিজেপির উগ্র হিন্দুত্বের পালটা হিসেবে নরম হিন্দুত্বের পথে হাঁটতে চলেছেন তাঁরা। আর তাতেই বেজায় খাপ্পা কেরলের মুখ্যমন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা পিনারাই বিজয়ন।  দেশজুড়ে চলা করোনা পরিস্থিতির মধ্যে ধুমধাম করে এই ভূমি পুজোর আয়োজন মানতে পারেননি কেরলের মুখ্যমন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান সিপিএম নেতা পিনারাই বিজয়ন।

বুধবারই দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটেছে। অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পুজো হয়েছে। ঐতিহাসিক এই দিনে অযোধ্যায় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রাম মন্দির তৈরির প্রথম ইটটি তিনিই ওই দিন স্থাপন করেছেন। তবে দেশজুড়ে চলা করোনা পরিস্থতির মধ্যে ধুমধাম করে ভূমি পুজোর আয়োজনকে সমর্থন করছেন না কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। রাম মন্দির ইস্যুতে নিজের দলের অবস্থান নতুন করে ব্যাখ্যা করতে রাজি নন বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ। তিনি বলেন, ‘সিপিএম অনেক আগেই নিজেদের অবস্থান এব্যাপারে স্পষ্ট করেছে।

মুখ্যমন্ত্রী বিজয়নের এই আক্রমণাত্মক মন্তব্যে বেশ বেকায়দায় পড়েছে কংগ্রেস। কারণ, আগামী বছরই কেরলে নির্বাচন। আর কেরলের নির্বাচনে ধর্মনিরপেক্ষতা চিরদিনই একটা বড় ভূমিকা নেই। স্বাভাবিকভাবেই তড়িঘড়ি নিজেদের অবস্থানের সাফাই দিতে আসরে নামেন শশী থারুর । তিনি বলেন,”কংগ্রেস কোনওদিনই অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের বিরোধী ছিল না। কিন্তু সেটা বর্বরভাবে মসজিদ ধ্বংস করে নয়। বামপন্থী বুদ্ধিজীবীরা বলছেন, আমরা নাকি বিজেপির মতো কাজ করছি। হ্যাঁ, কংগ্রেসের বহু নেতা রাম মন্দিরকে স্বাগত জানিয়েছেন। কিন্তু আমরা কখনও হিন্দুকে মুসলিমদের বিরুদ্ধে উসকানি দিইনি।”

আরও পড়ুন: কাশ্মীরে জঙ্গিদের গুলিতে নিহত বিজেপি নেতা

দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ লক্ষ পেরিয়েছে। করোনা কীভবে রোখা যাবে সেটাই ভাবা উচিত সকলের। সাম্প্রতিক মহামারীর জেরে গরিব আরও গরিব হয়েছে। এই বিষয়গুলিই সবার আগে ভাবতে হবে। বাকি সব কিছু পরে ভাবা যেতে পারে। রাম মন্দির ইস্যুতে কংগ্রেসের অবস্থানেরও কড়া সমালোচনা করেছেন এই সিপিএম নেতা। তিনি বলেন, ‘কংগ্রেসের অবস্থানে অবাক হইনি। কংগ্রেসের ধর্মনিরপেক্ষতা নিয়ে স্পষ্ট ধারণা থাকলে আজ দেশের এই পরিস্থিতি হত না। কংগ্রেস শুরু থেকেই নরম হিন্দুত্বের পথ বেছে নিয়েছে। বাবরি মসজিদ যখন ধ্বংস করা হচ্ছিল, সব দেখেও কারা চোখ বন্ধ করেছিল সবাই জানে।’

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close