fbpx
দেশহেডলাইন

এখনই বুস্টার ডোজ নয়, সেরামের আবেদন খারিজ কেন্দ্রের এক্সপার্ট কমিটির

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ করোনার নয়া প্রজাতি ওমিক্রন আতঙ্ক ক্রমশই তার প্রভাব বিস্তার করছে। এই ভ্যারিয়েন্ট ঠিক কতটা মারাত্মক হতে পারে, সে সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত সেভাবে কোনও দিশা দেখাতে পারেননি বিশেষজ্ঞরা। এই মুহূর্তে ওমিক্রন ঠেকাতে বুস্টার ডোজ জরুরি কিনা তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছে।

 

তৃতীয় ডোজের জন্য আবেদন করেছিল সেরাম ইন্সটিটিউট অব ইন্ডিয়া। শুক্রবার কেন্দ্রের সাবজেক্ট এক্সপার্ট কমিটি’র তৃতীয় ডোজের খারিজ করে দেয় বলে খবর। কেন্দ্রের তরফে সেরাম সংস্থাকে অতিরিক্ত তথ্য জমা দিতে বলা হয়েছে।

চলতি মাসেই ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া(DCGI)-র কাছে আবেদন জমা দেয় সেরাম ইন্সটিটিউট। সেই নিয়ে বিশেশজ্ঞ কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়। এর পর সেরাম ইন্সটিটিউটের সেই আবেদন খারিজ করে দেওয়া হয়। একইসঙ্গে সেরাম ইন্সটিটিউটকে কোভিশিল্ডের তৃতীয় ডোজ়ের প্রয়োজনীয়তা ও কার্যকারিতা বোঝানোর জন্য আরও অতিরিক্ত তথ্য জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে

কিছুদিন আগেই সেরাম সংস্থার সিইও আদার পুনাওয়ালা জানিয়েছিলেন, কেন্দ্রের কাছে কোভিশিল্ডের তৃতীয় ডোজ়ের অনুমোদনের জন্য আবেদন পাঠানো হয়েছে।

সেই সময়ই সেরাম সংস্থার ডিরেক্টর প্রকাশ কুমার সিংও বলেছিলেন, ‘ব্রিটেনে ইতিমধ্যেই অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা বুস্টার ডোজ হিসাবে অনুমোদন পেয়েছে। আমাদের দেশের নাগরিকরাও কোভিশিল্ডের দুটি ডোজ পেয়েছেন এবং তারা ক্রমাগত বুস্টার ডোজ়ের জন্য আবেদন জানাচ্ছেন’।

তবে শুধু কোভিশিল্ড নয়, অপর ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থা বায়োলজিক্যাল ই-র কর্বোভ্যাক্স টিকার অতিরিক্ত ডোজ়ের আবেদন খারিজ করে দেওয়া হয়েছে।

বায়োলজিক্যাল ই সংস্থার তরফে আবেদন করা হয়েছিল, যারা কোভিশিল্ড বা কোভ্যাক্সিনের দুটি টিকা নিয়েছেন, তারা তৃতীয় ডোজ হিসাবে কর্বোভ্যাক্স টিকা নিতে পারেন।

ভারতে উৎপাদিত তৃতীয় ভ্যাকসিন হল এই কোর্বেভ্যাক্স। প্রোটিন ভিত্তিক এই টিকা করোনা ভাইরাসের স্পাইক প্রোটিন দিয়েই তৈরি। তবে এখনও অবধি কেন্দ্রের তরফে তৃতীয় ডোজ় বা বুস্টার ডোজ় চালু করা সম্পর্কে কোনও তথ্য জানানো হয়নি।

 

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর) এর প্রধান বলরাম ভার্গব এই মুহূর্তে বুস্টার ডোজ দেওয়ার পক্ষপাতী নন৷ স্বাস্থ্য এবং পরিবার মন্ত্রণালয়ের বিশেষ কমিটির সঙ্গে বৈঠকে তিনি জানান, কেন্দ্রীয় সরকার এটিকে বুস্টার ডোজ না বলে তৃতীয় ডোজ বলতে চাইছে৷ আর এই তৃতীয় ডোজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও শর্ত থাকছে৷ কোনওভাবেই দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ন’মাসের আগে এটি নেওয়া যাবে না৷ ওমিক্রন সংক্রমণের দ্রুততা চিন্তা বাড়িয়ে তুলছে গোটা বিশ্বের কাছে। তবে এই মুহূর্তে বুস্টার ডোজ দেওয়ার পক্ষে নন ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা

 

 

Related Articles

Back to top button
Close