fbpx
কলকাতাহেডলাইন

পশ্চিমবঙ্গ নয় ইউপি, রাজস্থানে দলিত নির্যাতন হয়, মন্তব্য শশী পাঁজার

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: এ রাজ্যে দলিত নির্যাতন হয় না। মন্তব্য করলেন নারী শিশু ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এক সাক্ষাৎকারে দলিতদের উপর অত্যাচারের প্রসঙ্গে রাজস্থান ও উত্তরপ্রদেশের তুলনা টেনে শশী পাঁজা বলেন, ‘অনেক রাজ্যেই দলিতদের প্রতি নির্যাতন বেশি হয়। তবে আমাদের রাজ্যে হয় না।’

উল্লেখ্য, বিগত কয়েকদিনে বিজেপি রাজ্যের যেসব ইস্যুগুলোকে হাতিয়ার করে আক্রমণ শানিয়েছে শাসকদলের বিরুদ্ধে, তার মধ্যে অন্যতম ছিল দলিত নির্যাতন। তাই এদিন রাজ্যের শিশু নারী ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী শশী পাঁজা তার পাল্টা জবাব দিলেন। তার কথায় স্পষ্ট এ রাজ্যে নারী নির্যাতন বা দল নির্যাতনের কাজ হয় না।

পাশাপাশি এদিন মন্ত্রী শশী পাঁজা রাজ্য সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের খতিয়ান তুলে ধরেন। কন্যাশ্রী থেকে রূপশ্রী, রাজ্যে নারী উন্নয়ন সংক্রান্ত বিভিন্ন সাফল্যের পরিসংখ্যান তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য ৯ হাজার ৩৮৯ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। রূপশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে রাজ্যের ৫ লাখ ৫৮ হাজার উপভোক্তা উপকৃত হয়েছেন।’

এ প্রসঙ্গে শশী পাঁজা আরও বলেন, ‘নারী ক্ষমতায়নে বাংলার স্থান দেশের মধ্যে শীর্ষে । ডায়মন্ড হারবারে মহিলা বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি হয়েছে । চাইল্ড ও মাদার হাবের মাধ্যমে রাজ্যের অনেক মহিলা উপকৃত হয়েছেন । রাজ্যে মহিলা পরিচালিত থানার মাধ্যমে অনেকেই উপকৃত হচ্ছেন ।” তবে এইসব কিছুর কোনও প্রচার হচ্ছে না বলেও আজ ক্ষোভপ্রকাশ করেন তিনি। বলেন, “মুখ্যমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলার অনেক উন্নয়ন হচ্ছে । কিন্তু উন্নয়নমূলক কাজের কোনও প্রচার হচ্ছে না । ভুয়ো খবর ছড়ানো হচ্ছে ।”এই ধরনের ভুয়ো ভিডিয়োর জন্য নাম না করে বিজেপিকে নিশানায় নেন তিনি। বলেন, “কেন ডক্টরড ভিডিয়ো শেয়ার হচ্ছে ? যাঁরা এই ধরনের কাজ করছেন, তাঁরা উন্নয়নকে আড়াল করার জন্য এই ধরনের ভিডিয়ো ছড়াচ্ছেন ।”

সামনেই একুশের বিধান সভা ভোট। তার আগে আরও একবার স্পষ্ট করে রাজ্যের শিশু নারী ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, বিজেপিকে ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই। বিজেপির ভোট শেয়ার কমেছে । মহারাষ্ট্র, বিহার, দিল্লি সব জায়গাতেই ভোট শেয়ার কমেছে বিজেপির। সুতরাং বিহারের ফলাফল নিয়ে যে খুব একটা চাপে নেই তৃণমূল তা আজ স্পষ্ট করে দেন তিনি ।

পাশাপাশি বিজেপির মহিলা মোর্চা বার বার প্রশাসনের উপর আস্থা হারানোর যে অভিযোগ তুলেছে, তারও জবাব দেন তিনি। বলেন, “অনেকেই অনেক কিছু বলেন । কিন্তু বাস্তবে কিছু দেখতে পাবেন না । শুধু প্ররোচনা দেওয়া হয়। তাঁদের কথার মধ্যে গভীরতা নেই। আগামীদিনে আরও বিস্তারিত তথ্য দিয়ে যেন তাঁরা প্রশ্ন করেন ।” তবে বিজেপির জেলাভিত্তিক পর্যবেক্ষক নিয়োগের বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি।

Related Articles

Back to top button
Close