fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বার্ণপুরে বৃদ্ধকে পিটিয়ে খুন, আটক অভিযুক্ত প্রতিবেশী সহ তিন

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: জলের পাইপ নিয়ে যাওয়ার জন্য বাড়ির সামনে থেকে স্কুটি সরাতে বলায় প্রতিবেশীদের মার খেয়ে মৃত্যু হল এক বৃদ্ধর। সোমবার দুপুরের এই ঘটনাটি ঘটে আসানসোলের হিরাপুর থানার বার্ণপুরের রহমত নগরের চাষাপট্টিতে। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

বৃদ্ধর পরিবারের দাবি , প্রতিবেশীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে গেলে পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে তা নিতে চায়নি। দোষীদের শাস্তি ও গ্রেফতারের দাবিতে পুলিশের সামনে বিক্ষোভ দেখান মৃত বৃদ্ধর পরিবারের সদস্য সহ স্থানীয় বাসিন্দারা। যদিও হিরাপুর থানার পুলিশের দাবি, ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় যাওয়া হয়। প্রতিবেশী মহঃ তনবীর সহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের বলা হয়েছে, দেহ ময়নাতদন্তের পরে অভিযোগ করতে। তা পাওয়া গেলেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। মৃত বৃদ্ধর নাম নবি হুসেন(৭২)।

পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা গেছে, এদিন সকাল এগারোটা নাগাদ বার্ণপুরের রহমতনগরের চাষাপট্টি এলাকায় রাস্তার কল বা ট্যাপে জল আসে। বাড়ির সামনে একটি কল থেকে জল নেওয়ার জন্য পাইপ লাগিয়েছিলো নবী হুসেনের পরিবার। কিন্তু প্রতিবেশী মহঃ তনবীরের বাড়ির সামনে একটি স্কুটি দাঁড়িয়ে থাকায় রাস্তা দিয়ে পাইপ নিয়ে যেতে অসুবিধা হয়। সেই জন্য তনবীরকে স্কুটিটি সরাতে বলেন নবী হুসেনের পরিবারের সদস্যরা। যা নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে কথা কাটাকাটি থেকে অশান্তি শুরু হয়ে যায়। পাড়ার অন্য প্রতিবেশীরা এসে কথা বলে তখনকার মতো বিষয়টি মিটমাট করিয়ে দেন। ঘন্টা দুয়েক পরে কিছুক্ষণ মহঃ তনবীর ও পরিবারের সদস্যরা দলবল নিয়ে নবী হুসেনের বাড়িতে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। তারা লাঠি, লোহার রড নিয়ে নবী হুসেনের বাড়ির দরজা ভেঙ্গে ঢুকে সবাইকে মারধর শুরু করে। সেই সময় নবী হুসেন বাধা দিতে গেলে হামলাকারীরা তার উপর চড়াও হয়ে মারধর করে । ধাক্কা দেওয়ায় ঐ বৃদ্ধ মাটিতে পড়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন৷ আশপাশের লোকেরা আসার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। অচৈতন্য অবস্থায় বৃদ্ধকে পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। সেই ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় ছুটে আসে হিরাপুর থানার পুলিশ। এই ঘটনার পরেই পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয় বাসিন্দারা দোষীদের শাস্তির দাবি তুলে বিক্ষোভ দেখায়। থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে গেলে তা নেওয়া হয়নি বলে মৃত বৃদ্ধর বড় ছেলে আনোয়ার হুসেন এদিন বলেন।

তিনি আরও বলেন, বাবাকে ছোট একটা কারণে প্রতিবেশী মহঃ তনবীর ও তার পরিবারের সদস্যরা পিটিয়ে খুন করেছে। আমরা তাদের শাস্তি চাই। এই ঘটনা নিয়ে আসানসোল দূর্গাপুর পুলিশের ডিসিপি (পশ্চিম) অনমিত্র দাস বলেন, জলের পাইপ নিয়ে যাওয়া নিয়ে দুই প্রতিবেশীর ঝগড়া নিয়ে ঘটনা। তার মধ্যে এক বৃদ্ধকে ধাক্কা মেরে ফেলে এক প্রতিবেশী মহঃ তনবীর। পরে তার মৃত্যু হয়। প্রতিবেশীকে আটক করা হয়েছে। বৃদ্ধর পরিবারকে অভিযোগ করতে বলা হয়েছে। তা পেলে আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button
Close