fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

‘ওমিক্রন’ মৃদু উপসর্গ মানেই হেলাফেলা নয়, মানতে হবে কোভিডবিধিনিষেধ….. জানিয়ে দিল WHO

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ করোনার নয়া প্রজাতি ওমিক্রন ইতিমধ্যেই বিশ্বে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। এখনও পর্যন্ত এই ভ্যারিয়েন্ট যে কতটা মারাত্মক তা নিয়ে কোনো আশ্বস্ত বার্তা জানাতে পারেননি বিশেষজ্ঞরা। তবে সকলকেই কোভিডবিধি মেনে সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে এই ভাইরাস যে কোনওভাবে হেলাফেলার জিনিস নয়, তা নিয়ে আগাম সতর্ক করল ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন ‘হু’ (WHO)। মঙ্গলবার হু-র তরফে দাবি করা হয়েছে, দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে করোনার এই মারাত্মক ভ্যারিয়েন্ট।

 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেডরস আধানম ঘেব্রেসাস সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান, এখনও পর্যন্ত বিশ্বের ৭৭ টি দেশে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের হদিশ পাওয়া গিয়েছে। এর আগে অন্য কোনও ভ্যারিয়েন্টকে এত দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন তিনি। বিশ্বের সব থেকে বেশি দেশে এই ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন হু প্রধান। টিকাকরণ হলেও এই ভ্যারিয়েন্ট নিয়ে কোনও আশ্বাসবাণী শোনাতে পারেননি বিশ্ব স্বাস্থ্য অধিকর্তা।

 

টেডরস আধানম বলেন, ‘ওমিক্রনকে মৃদু বলে গুরুত্ব দিচ্ছেন না অনেকে। কিন্তু ওমিক্রনের জেরে অসুস্থতা যতই কম হোক না কেন, এত বেশি সংখ্যায় মানুষ আক্রান্ত হতে পারে যাতে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা আঘাত হানতে পারে’। তাই মৃদু উপসর্গ মানেই মুখে মাস্ক পরব না, কোভিডবিধি মেনে চলব না, এটা করা যাবে না। তাই করোনাবিধিনিষেধ কঠোরভাবে মেনে চলা উচিত।

প্রসঙ্গত, ওমিক্রন আটকাতে বুস্টার ডোজের কথা বলছেন কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানরা। ব্রিটেনে প্রথম ওমিক্রন আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। তারপর এই আতঙ্ক আরও বাড়ছে।

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close