fbpx
একনজরে আজকের যুগশঙ্খকলকাতাহেডলাইন

নির্বাচনের দিন অভ্যাস মতোই আড়ালে রইলেন প্রার্থী মমতা, ভোট দিলেন আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে

নিজস্ব প্রতিনিধি: নন্দীগ্রামের নির্বাচন ছিল একেবারেই ব্যতিক্রম। একুশের নির্বাচনে সেখানকার তৃণমূল প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোটের দিন একাধিক বুথের সামনে দেখা গেলেও, বৃহস্পতিবার ভবানীপুরের উপনির্বাচনে সবার আড়ালেই থাকলেন তিনি। প্রতিবারই তাঁকে এভাবেই দেখতে অভ্যস্ত সকলে। ভোটের দিন বুথে বুথে ঘুরে ভোটারদের সঙ্গে দেখা করেন প্রায় সমস্ত প্রার্থীই। কিন্তু এ বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বরাবর হাঁটেন উল্টো পথেই। প্রার্থী হিসেবে সাধারণত নির্বাচনের দিন নিজেকে আড়ালেই রাখেন তিনি। এদিনও তার ব্যতিক্রম হল না। তাঁকে দেখা গেল শুধু ভোটদানের সময়।

নন্দীগ্রামে গত ১ এপ্রিল ভোটের দিনও দুপুর পর্যন্ত বাইরে আসেননি তিনি। তবে বিক্ষিপ্ত অশান্তির কথা জানার পর সেদিন বিকেলের দিকে বুথ পরিদর্শনে বেরোন। এমনকী অনিয়মের অভিযোগে একটি বুথে দীর্ঘক্ষণ অবস্থান পর্যন্ত করেছিলেন তিনি। তবে বৃহস্পতিবার অবশ্য মোটের উপর নির্বিঘ্নেই শেষ হয়েছে ভবানীপুরের উপনির্বাচন। স্বাভাবিকভাবেই অভ্যাস মতো নিজেকে আড়ালেই রেখেছিলেন মমতা। এদিন

বেলা সওয়া তিনটে নাগাদ মিত্র ইনস্টিটিউশনে এসে ভোট দেন তিনি। বুথে প্রবেশের আগে উপস্থিত ভোটারদের উদ্দেশে নমস্কার করেন। তারপরই ঢুকে পড়েন ভোট দিতে। মিনিট চারেক পর ভোটদান সেরে গাড়িতে উঠে পড়েন। নিজের চেনা গড় ভবানীপুরে জয়ের ব্যাপারে অসম্ভব আত্মবিশ্বাসী তিনি। গত কয়েকদিন ধরে তিনি ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছেন।  উপনির্বাচনের ঠিক আগের দিন বুধবার সন্ধ্যায় রাজ্যের মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনের বাড়িতে গানের আসরে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। আর নির্বাচনের দিন থাকলেন বাড়িতে। প্রথমে জানা গিয়েছিল বেলা সাড়ে ৪টে নাগাদ ভোট দিতে যাবেন তিনি। যদিও তার অনেক আগেই ভোটদান করেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্যদিকে

বিকেল ৪টে ২৩ মিনিটে বাবার সঙ্গে ভোট দিতে মিত্র ইনস্টিটিউশনে পৌঁছে গিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সকালে তাঁর ভোট দেওয়ার কথা থাকলেও শেষ বেলাতেই আসেন তিনি।

 

Related Articles

Back to top button
Close