fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বাংলা-ঝাড়খণ্ড সীমান্তে বেআইনি মদ সহ গ্ৰেফতার এক

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: প্রতিদিনই বাংলা – ঝাড়খণ্ড সীমান্তে কল্যানেশ্বরী নাকা পয়েন্টে আসানসোল দূর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের কল্যানেশ্বরী ফাঁড়ির পুলিশ নাকা চেকিং করে থাকে। ঝাড়খণ্ড থেকে আসা ও যাওয়া প্রতিটি গাড়িকে পরীক্ষা করে থাকে পুলিশ। তার মধ্যে লকডাউন চলছে। তাই সীমান্তের নাকা পয়েন্টে পুলিশের পরীক্ষা ও নজরদারি আরো বেড়েছে। কড়া করা হয়েছে নিরাপত্তাও।

জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যায় কল্যানেশ্বরী নাকা পয়েন্টে পুলিশ গাড়ি পরীক্ষা করছিল। সেই সময় ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা উমেশ বাউরি নামে এক ব্যাক্তি মোটরবাইকে একটি ব্যাগ নিয়ে ঝাড়খণ্ডের দিকে যাচ্ছিল। পুলিশ তাকে দাঁড় করিয়ে বাইকে থাকা ব্যাগ পরীক্ষা করে। তখন ব্যাগ থেকে পাওয়া যায় দেশি মদের বোতল। তাকে সঙ্গে সঙ্গে আটক করে পুলিশ।

জেরায় সে পুলিশকে বলে, কুলটির রামনগর এলাকার একটি দেশি মদের দোকান থেকে ৪০ টি দেশি মদের বোতল ঝাড়খণ্ডের সঞ্জয়চোকে নিয়ে যাচ্ছিল৷ কল্যানেশ্বরী ফাঁড়ির পুলিশ উমেশ বাউরিকে গ্রেফতার করার পাশাপাশি ব্যাগের মধ্যে প্রায় ৪০টি দেশি মদের বোতল বাজেয়াপ্ত করে। বৃহস্পতিবার উমেশ বাউরি কে আসানসোল আদালতে তোলা হলে, বিচারক তার জামিন নাকচ করেম।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃত উমেশ বাউরি প্রায়ই পশ্চিম বর্ধমানের আসানসোলের বিভিন্ন দেশি মদের দোকান থেকে মদ নিয়ে ঝাড়খণ্ডের বিভিন্ন দোকানে সরবরাহ করে। সেইমতো বুধবার উমেশ কুলটির রামনগর এলাকা থেকে ৪০টি দেশি মদের বোতল নিয়ে ঝাড়খণ্ড যাচ্ছিলো।

পুলিশ জানায়, ঝাড়খণ্ডে এই দেশি মদ পাওয়া যায় না। কিন্তু এই মদের চাহিদা প্রচুর। তাই চড়া দামে এই দেশি মদ বিক্রি হয় ঝাড়খণ্ডের বিভিন্ন দোকানে।

Related Articles

Back to top button
Close