fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

“সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে”! নিম্নবর্ণ, বৈঠকে তাই মাটিতে বসতে হলো নির্বাচিত প্রতিনিধিকে, উত্তপ্ত তামিলনাড়ু

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: নিম্ন সম্প্রদায়ের বলে এক নির্বাচিত পঞ্চায়েত নেত্রী বৈঠকে বসতে চেয়ার পেলেন না। বসতে হল মাটিতে। ঘটনাটি ঘটেছে তামিল নাড়ুর কাড্ডালোরে।

কাড্ডালোরের থেরকু থিট্টাই গ্রাম পঞ্চায়েতের সভানেত্রী ওই মহিলা আদি দ্রাবিড় সম্প্রদায়ভুক্ত। এই সম্প্রদায়টি তফসিলি জাতিভুক্ত। গতবছর সংরক্ষিত আসনে পঞ্চায়েত ভোটে জিতেছিলেন তিনি। যে বৈঠককে কেন্দ্র করে এই ঘটনা, পঞ্চায়েত সভানেত্রী হওয়ায় সেই বৈঠকের নেতৃত্ব দেওয়ার কথাও ছিল ওই নেত্রীর। কিন্তু বসার জন্য চেয়ার তো দূর অস্ত, বৈঠকের নেতৃত্বও করতে দেওয়া হয়নি মহিলাকে। পরে তিনি অভিযোগ করেন, ‘‌আমার জাতের জন্যই সহ সভাপতি আমায় বৈঠকে নেতৃত্ব দিতে দেননি। পতাকাও উত্তোলন করতে দেননি। ওনার বাবাকে দিয়ে করিয়েছেন। যদিও আমি এই এত মাস ধরে উচ্চবর্ণের সঙ্গে সহযোগিতা করে আসছি, এবার সহয়ের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে।’‌

ওই ঘটনার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই পের বর্ণ বৈষম্যের ক্ষোভ ছড়িয়েছে দেশে। বিক্ষোভ বাড়তেই নড়েচড়ে বসে কাড্ডালোরের জেলা প্রশাসন। অবশেষে ঘটনাটি সামনে আসতে সাসপেন্ড করা হয়েছে ওই সভাপতিকে।

Related Articles

Back to top button
Close