fbpx
কলকাতাহেডলাইন

শেষ মুহূর্তে স্থগিত হয়ে গেল অক্সফোর্ডের বিতর্কসভা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:   শেষ মুহূর্তে স্থগিত হয়ে গেল অক্সফোর্ডের বিতর্কসভা।বাংলার আর্থ সামাজিক উন্নয়ন এবং রাজ্য সরকারের কয়েকটি প্রকল্প নিয়ে বক্তব্য রাখার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । দেশের প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী তথা প্রশাসনিক প্রধান হিসেবে এই বিশেষ কৃতিত্ব অর্জন করেছেন মমতা। ২ ডিসেম্বর দুপুর আড়াইটা নাগাদ বক্তব্য রাখার সময় স্থির হয়, কিন্তু শেষ মুহূর্তে স্থগিত করা হয় অনুষ্ঠান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে টুইট করে অনুষ্ঠান বাতিলের কথা ঘোষণা করা হয়।

স্বরাষ্ট্রদফতরের তরফে টুইট করে জানানো হয়, “পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর আজ অক্সফোর্ড ইউনিয়নের বিতর্কসভায় অংশগ্রহণের কথা ছিল। কিন্তু অনুষ্ঠান শুরুর কিছু মুহূর্ত আগে উদ্যোক্তারা দিনবদল করেছেন। অনুষ্ঠান স্থগিত করা হয়েছে। শেষ মুহূর্তে উদ্যোক্তরা একথা জানান।”

করোনা কালে চলতি বছরের জুলাই মাসে এই বিতর্কসভার পরিকল্পনা করেছিল লন্ডনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। সেসময়ই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আয়োজকরা আহ্বান জানান এতে অংশ নেওয়ার জন্য। তাঁদের আমন্ত্রণ গ্রহণ করে বার্তা পাঠান মুখ্যমন্ত্রী। সেইমতো, ২ ডিসেম্বর ভারতীয় সময়ে বিকেল ৫টা নাগাদ ভারচুয়ালি সেখানে অংশ নেওয়ার কথা ছিল তৃণমূল সুপ্রিমোর। অক্সফোর্ডের পড়ুয়ারা তাঁর জন্য প্রশ্নও তৈরি করে ফেলেছিলেন। অনলাইনে ৬০০র কাছাকাছি প্রশ্ন জমা পড়েছিল। তার মধ্যে থেকে নির্বাচিত কিছু প্রশ্ন তুলে দেওয়া হত মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। তবে বিতর্কসভায় মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের মূল অংশ হত বাংলার উন্নয়ন।

আরও পড়ুন: ‘উঠল আওয়াজ বঙ্গে, খুনি ধর্ষণকারি মাফিয়া, কাটমানি খোর ও চাল চোররা দিদির সঙ্গে’: লকেট

অক্সফোর্ড ইউনিয়ন উনবিংশ শতাব্দীর গোড়ার দিকে একটি বিতর্ক সমাজ হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৮২৩ সালে প্রতিষ্ঠিত অক্সফোর্ড ইউনিয়নে দালাই লামা, স্টিফেন হকিং, অ্যালবার্ট আইনস্টাইন এবং মাদার টেরেসার মতো বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ বক্তব্য রেখেছেন। চলতি বছরের জুলাইয়ে বিতর্কসভায় যোগ দিতে মমতাকে অক্সফোর্ড যাওয়ার আমন্ত্রণ জানায় অক্সফোর্ড ইউনিয়ন ডিবেটিং সোসাইটি। অক্সফোর্ড ইউনিয়ন শিক্ষার্থীদের অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য এবং তাঁদের প্রশ্নগুলি ১ ডিসেম্বরের মধ্যে জমা দেওয়ার জন্য বলেছিল। ২০১০ সালে রেলমন্ত্রী থাকাকালীন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অনুষ্ঠানে ভাষণ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পেয়েছিলেন তবে সেই আহ্বানে সাড়া দেননি তত্‍কালীন রেলমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

Related Articles

Back to top button
Close