fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

নাশকতার প্রশিক্ষণ দিয়ে তালিবান জঙ্গিদের কাশ্মীরে পাঠাচ্ছে পাক সেনা, চাঞ্চল্যকর দাবি গোয়েন্দাদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি : নাশকতার প্রশিক্ষণ দিয়ে তালিবান জঙ্গিদের কাশ্মীরে পাঠাচ্ছে পাক সেনা, চাঞ্চল্যকর দাবি ভারতীয় গোয়েন্দাদের।
ভারতের বিরুদ্ধে তালিবান জঙ্গিদের উস্কাচ্ছে পাকিস্তান।

 

 

এ বিষয়ে কিছুদিন আগেই সতর্ক করেছিল ভারতীয় গোয়েন্দারা। এবার সে বিষয়ে আর এক ধাপ এগিয়ে শুক্রবার সেনাবাহিনীর হাতে একটি রিপোর্ট তুলে দিয়ে গোয়েন্দারা জানালো, পাকিস্তানের মদতে যে কোনও মুহূর্তে উপত্যকায় অনুপ্রবেশ করতে প্রস্তুত তালিবান জঙ্গিরা। ইতিমধ্যেই নৌসেরা সেক্টরের কাছে পাক সেনার একটি লঞ্চপ্যাডে দুই তালিবান-সহ চার জঙ্গি অনুপ্রবেশের জন্য অপেক্ষা করছে। সেখানে তাদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে পাক সেনার ২৮ সিন্ধ ব্যাটালিয়ন।
শুধু তাই নয়, ভারতীয় সেনাবাহিনীকে নিশানা করে পুলওয়ামার মতো আর একটি বড়সড় আত্মঘাতী হামলা চালানোর জন্য আফগানিস্তানের নানগরহার প্রদেশে পাক সেনার স্পেশাল সার্ভিস গ্রুপের তত্ত্বাবধানে ২০ জন তালিবান জঙ্গির বিশিষ প্রশিক্ষণ চলছে। প্রশিক্ষণ শেষ হলেই তাদেরকে নাশকতা ঘটানোর জন্য কাশ্মীরে অনুপ্রবেশের ছক কষা হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে ওই রিপোর্টে।

 

 

তালিবানদের সঙ্গে শান্তিচুক্তি হবার পর পর্যায়ক্রমে সেনা প্রত্যাহার শুরু করেছে আমেরিকা। আর সেই সুযোগে তালিবানদের মদত দেওয়ার কাজ শুরু করেছে পাকিস্তান। তাদের মূল লক্ষ্য তালিবানদের কাজে লাগিয়ে আফগানিস্তান থেকে ভারতের প্রভাব মুক্ত করা এবং উপত্যকায় লাগাতার জঙ্গি নাশকতা ঘটানো। এবিষয়ে ভারতের গোয়েন্দারা আগেই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিল। শুক্রবার গোয়েন্দাদের দেওয়া রিপোর্ট সেই আশঙ্কাই সত্যি প্রমাণিত করেছে।

 

 

শুধু ভারতীয় গোয়েন্দারা নয়, এই বিষয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে রাষ্ট্র সংঘের নিরাপত্তা পরিষদও। কিছুদিন আগে নিরাপত্তা পরিষদের এক রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, জম্মু ও কাশ্মীর-সহ গোটা ভারতীয় উপমহাদেশে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান, জইশ-ই-মহম্মদ ও লস্করের মতো জেহাদি সংগঠনগুলি। এর মূল কারণ তালিবান সংগঠনের বর্তমান মাথা মোল্লা ইয়াকুব আসলে পাক সমর্থিত মোল্লা ওমরের ছেলে বলে মনে করছেন কূটনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

Related Articles

Back to top button
Close