fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বাংলায় অপরাধের স্থান নেই, বিরোধীদের পাল্টা দিলেন পার্থ

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: এরাজ্য থেকে আল-কায়েদার ছ’জন জঙ্গি ধরা পড়ার পর থেকেই উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। দফায় দফায় বিরোধীদের কটাক্ষে বিদ্ধ হতে হয়েছে রাজ্যের শাসক দলকে। বিরোধীরা কটাক্ষ করে বলেছিলেন, ‘বাংলা জঙ্গিদের আঁতুড়ঘর হয়ে উঠেছে।’ তাই এবার বিরোধীদের পাল্টা তোপ দাগলেন তৃণমূলের মহাসচিব তথা শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।। তাঁর কথায়, বাংলায় অপরাধকে প্রশ্রয় দেয়া হয় না। রবিবার বেহালায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়ে এক প্রতিবাদ সভায় যোগ দিয়েছিলেন তিনি। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একথা বলেন।

তিনি বলেন,’বাংলা আঁতুড়ঘর না কি, তা এখানে না জিজ্ঞাসা করে যেখানে জিজ্ঞাসা করার সেখানে করুন। এর মধ্যে কতটা রাজনীতি আছে আর সত্য আছে তারাই বলবেন। প্রশাসনের কাজ প্রশাসন করবে। অপরাধীদের জায়গা এটা নয়। সে রাজনৈতিক অপরাধী বা সন্ত্রাসবাদি যেই হোক না কেন। যে কোন অপরাধমূলক কাজের জায়গা এটা নয়। এটা নিয়ে যারা রাজনীতি করছেন তারা দেশ নিয়ে রাজনীতি করছেন।’

অন্যদিকে সম্প্রতি দুর্গাপুজোর সুচির মধ্যেই নেট এক্সাম এর সূচি ঘোষণা করা হয়েছে। যদিও এ নিয়ে ইতিমধ্যেই দলের সংসদ তথা যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আপত্তি জানিয়ে গতকাল টুইট করেছিলেন। তবে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গলায় এদিন একটু অন্যরকম সুর শোনা গেল। তিনি বলেন, ‘ঘোষণার সময় সতর্ক হলে ভালো হত। আমাদের নজরে আসেনি। নজরে আসলে নিশ্চয়ই বলতাম। তবে আমরা বলার কথা বলব। ওদের শোনার কথা শুনবে। কি করে সেটাই দেখার। ওদের কাছে কোভিড কিছু নয়। কিন্তু কোভিডের মধ্যে মানুষ কতটা বিপন্ন তা আমরা জানি। তাই মানুষের বিপন্নতা নিয়েই আমরা এই মুহূর্তে ব্যস্ত।’

এদিকে এদিন তুমুল তরজার মধ্যে দিয়ে রাজ্যসভায় ধ্বনি  ভোটে পাস হয়ে গেল কৃষক বিল। এ প্রসঙ্গে পার্থ বলেন, ‘এ এক বিরল নজির সংসদীয় গণতন্ত্রে। যেভাবে রাজ্যসভায় কৃষক বিল পাস করানো হল। তা গণতন্ত্রের ওপর আঘাত। রীতিমতো সংবাদমাধ্যমকে অন্ধকারে রেখে বিল পাস করানো হল। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও বিরোধিতা করছি।’

Related Articles

Back to top button
Close