fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

চিকিৎসায় গাফিলতিতে রোগী মৃত্যু ঘিরে উওাল পূর্ব মেদিনীপুর

মিলন পণ্ডা, (পূর্ব মেদিনীপুর): রোগী মৃত্যুকে ঘিরে ফের উত্তাল হয়ে উঠল পূর্ব মেদিনীপুর। চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে এক বেসরকারী নার্সিংহোমে ভাঙচুর চালালো রোগীর আত্মীয় পরিজনরা। কিন্তু তাতেও থেমে থাকেনি মৃত রোগীর আত্মীয় পরিজনরা। নার্সিংহোমের চিকিৎসকের শাস্তির দাবিতে সোচ্চার হন।

হেঁড়িয়া-ইটাবেড়িয়া রাস্তায় জুখিয়া বাজারের কাছে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভের সামিল হন মৃত রোগীর আত্মীয় পরিজনরা। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে ভুপতিনগর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।

আরও পড়ুন: বিহারের মুঙ্গেরে বিসর্জনের দিন হিন্দুদের ওপর হামলা নিন্দনীয়, মুখ খুললেন শিবসেনা নেতা

জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ভুপতিনগর বামুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা অভীক দাসের স্ত্রী শিপ্রা রানী দাস (২৬) বৃহস্পতিবার দুপুর দুটো নাগাদ প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে ভূপতিনগর মৌমিতা নামে একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করেন তাঁর পরিবারের লোকেরা। এদিন সন্ধ্যা নাগাদ নার্সিংহোমে স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ রবীন্দ্রনাথ জানা অপারেশন করে একটি পুত্র সন্তানের সন্তানের প্রস্রব করান। তারপর থেকে শিপ্রাদেবীর অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ চলতে থাকে।

পরিবারের সদস্যরা এ নিয়ে একাধিকবার চিকিৎসককে জানালেও প্রথমে কোনও গুরুত্ব দেয়নি বলে অভিযোগ। তারপরই গৃহবধূ আর রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে পারেনি চিকিৎসকরা। রাত দুটো নাগাদ হাসপাতালে শিপ্রাদেবীর মৃত্যু হয়। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ থেকে গভীর রাতে গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়ে দেয়।

মৃত্যুর সংবাদে ক্ষোভে ফেটে পড়েন মৃত গৃহবধূর আত্মীয়-পরিজনরা। শুক্রবার সাতসকালে চিকিৎসার গাফিলতিতে প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে আত্মীয়-পরিজনরা নাসিংহোমে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। নার্সিংহোমে ভাঙচুর চালায় আত্মীয় পরিজনরা। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে ভুপতিনগর থানার পুলিশ। কিন্তু তাতেও থেমে থাকেনি মৃত রোগীর আত্মীয় পরিজনরা। হেঁড়িয়া ইটাবেড়িয়া রাস্তায় জুখিয়া বাজারের কাছে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভের সামিল হয়।

তাঁদের দাবি নার্সিংহোমে চিকিৎসক ডঃ রবীন্দ্রনাথ জানাকে অবিলম্বে উপযুক্ত শাস্তি প্রদান দিতে হবে। পুলিশ আশ্বস্ত করলেও অবশেষে অবরোধ তুলে নেয় মৃত রোগীর আত্মীয় পরিজনরা। যদিও এ বিষয়ে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ ও চিকিৎসকের কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মৃত গৃহবধূর ময়না তদন্তে জন্য কাঁথি হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close