fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা নিয়ে বিভ্রান্তিতে মেডিক্যালে ডায়ালিসিস ছাড়াই এক সপ্তাহ ধরে পড়ে রয়েছেন মুমূর্ষু রোগি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: হাসপাতালের ‘ডিসচার্জ রিপোর্টে’র গেরোয় চূড়ান্ত মাশুল দিতে হল এক মুমূর্ষু রোগিকে।  কিডনির অসুখে ভোগা ‘করোনা আক্রান্ত’ এক রোগিকে নিয়ে টানাহেঁচড়ার ঘটনায় সামনে এল এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ। ফলে রোগিকে ছেড়ে দিয়েও ফের ভর্তি করতে বাধ্য হল কলকাতা মেডিক্যাল।

জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তির দুটি কিডনি-ই নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। তাই ডায়ালিসিস চলছিল। এরমধ্যেই তিনি করোনা আক্রান্ত হন। এরপর সেই রোগিকে ২২ দিন চিকিৎসা করে বাড়ি পাঠিয়েছিল কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল। কিন্তু ডিসচার্জ পেপারে কোথাও লেখা হয়নি যে ওই রোগি করোনামুক্ত হয়েছেন। অভিযোগ, বাড়ি ফিরেই ফের তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়।
এরপর পরিবারের লোকেরা ওই রোগিকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে। সেখানে রিপোর্ট দেখে চিকিৎসকরা বলেন, তিনি তখনও করোনা আক্রান্ত রয়েছেন। অথচ তিনি ছিলেন পরিবারের সঙ্গেই। এই ঘটনায় রীতিমত আতঙ্কিত হয়ে পড়ে পরিবার। তাঁকে ফের পাঠানো হয় কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

অভিযোগ, কলকাতা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরেও এক সপ্তাহ কেটে গিয়েছে। হাসপাতাল ফের তাঁর করোনা পরীক্ষা করার জন্য নমুনা পাঠিয়েছে। কিন্তু নতুন করে রিপোর্ট না আসায় এখনও ডায়ালিসিস শুরু হয়নি। এদিকে এই মুহূর্তে রোগীর শারীরিক যা পরিস্থিতি, তাতে তাঁর সপ্তাহে ৩ দিন করে ডায়ালিসিসের প্রয়োজন। পরিবারের অভিযোগ, এই মুহূর্তে মরণাপন্ন অবস্থায় হাসপাতালের বেডে পড়ে রয়েছেন রোগি। এই অবস্থায় রোগির আকস্মিক মৃত্যু হলে তার দায় নিতে হবে হাসপাতালের গাফিলতিকেই, অভিযোগ পরিবারের। বিষয়টি বৌবাজার থানাতেও তারা জানিয়ে রেখেছেন।

 

Related Articles

Back to top button
Close